cosmetics-ad

আইএস দমনে দৈনিক ব্যয় ৯০ লাখ ডলার

islamic-state

ইরাকে জঙ্গি সংগঠন ইসলামিক স্টেট (আইএস) এর বিরুদ্ধে লড়াইয়ে যুক্তরাষ্ট্রকে প্রতিদিন গড়ে ৯০ লাখ মার্কিন ডলার খরচ করতে হচ্ছে।

গত বছরের আগস্ট থেকে আইএস এর বিরুদ্ধে মার্কিন অভিযানে ব্যয় হয়েছে ২ দশমিক ৭ বিলিয়ন মার্কিন ডলার। এই ব্যয়ের দুই তৃতীয়াংশ চলে যায় বিমান অভিযানে। মার্কিন কংগ্রেস আইএস এর বিরুদ্ধে আরো ব্যয়ের প্রস্তাব প্রত্যাখ্যান করায় আইএসবিরোধী অভিযানে খরচের বিষয়টি সামনে চলে আসে।

চলতি সপ্তাহে হোয়াইট হাউজ ইরাকে সাড়ে ৪শ’ সামরিক প্রশিক্ষক পাঠানোর ঘোষণা দিলে আইএসবিরোধী অভিযানে মার্কিন খরচের বিষয়টি প্রকাশ করেছে পেন্টাগন।

পেন্টাগনের ওই প্রতিবেদনে আরও জানানো হয়, আইএসের বিরুদ্ধে বিমান হামলা পরিচালনায় এ পর্যন্ত যুক্তরাষ্ট্র সরকারের ব্যয় হয়েছে ২.৭ বিলিয়ন মার্কিন ডলার (প্রায় ২১ হাজার ৫০ কোটি টাকা)। অর্থাৎ আইএস মোকাবেলায় দেশটির বরাদ্দ বাজেটের দুই-তৃতীয়াংশই বিমান হামলা খাতে ব্যয় হয়েছে।

গত বছর আগস্ট থেকে মার্কিন নেতৃত্বে ইরাকে আইএস বিরোধী যৌথ অভিযান শুরু হয়। এরপর থেকেই এ খাতে দেশটির ব্যয় ক্রমাগত বেড়েছে। এরই প্রেক্ষিতে সম্প্রতি এ খাতে অর্থ বরাদ্দ বন্ধে একটি বিল উত্থাপিত হয় মার্কিন কংগ্রেসে। তবে তা বাতিল হয়ে যায়। সেই সঙ্গে হাউজ অব রিপ্রেজেন্টেটিভ প্রতিরক্ষা খাতে অনুমোদন দিয়েছে আরও পাঁচশ’ ৭৯ বিলিয়ন ডলার।

এদিকে, চলতি সপ্তাহে ইরাকি সেনা ও সুন্নি যোদ্ধাদের প্রশিক্ষণ দিতে আরও সাড়ে চারশ’ সেনা পরামর্শক দেশটিতে পাঠানোর ঘোষণা দিয়েছে হোয়াইট হাউজ। তবে এই সেনারা কোনো লড়াইয়ে অংশ নেবে না। বর্তমানে ইরাকি সেনাদের প্রশিক্ষণ ও কারিগরি সহায়তা দিতে দেশটিতে তিন হাজার একশ’ মার্কিন সেনা অবস্থান করছে।