cosmetics-ad

ফেসবুকের নতুন প্রতিদ্বন্দ্বী মাইন্ডস ডটকম

minds

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম হিসেবে একচ্ছত্র আধিপত্য বিস্তার করছে ফেসবুক। ফেসবুকের জনপ্রিয়তার ধারে কাছেও যেতে পারছে না নতুন কোন সাইট। কিন্তু এবার ফেসবুকের জনপ্রিয়তায় ভাটা পড়তে যাচ্ছে বলে মনে করা হচ্ছে। ফেসবুকের নতুন প্রতিদ্বন্দ্বী হিসেবে আসছে মাইন্ডস ডটকম। আর এ সাইটটি আনছে অ্যানোনিমাস হ্যাকার সংগঠন। খবর দ্য ইনডিপেনডেন্ট।

বিশ্বের নাম করা অনেক প্রতিষ্ঠানের সাইবার নিরাপত্তা কোড ভেঙে এরই মধ্যে ব্যাপক পরিচিতি পেয়েছে অ্যানোনিমাস হ্যাকার সংগঠন। নিরাপত্তার দিক থেকে কেমন হবে নতুন সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমটি, তা অনুমান করা যায়। যেখানে শীর্ষস্থানীয় প্রযুক্তি প্রতিষ্ঠান থেকে শুরু করে ভিন্ন খাতের আরো অনেক প্রতিষ্ঠানই অ্যানোনিমাসের হামলা থেকে রেহাই পায়নি। এক্ষেত্রে মাইন্ডস ডটকমের নিরাপত্তা ভেদ করবে, এমনটা কল্পনায়ই সম্ভব। অর্থাৎ নতুন সামাজিক যোগাযোগের এ মাধ্যম গোপনীয়তা, নিরাপত্তা ও স্বচ্ছতার দিক থেকে আর সব সাইট থেকে সম্পূর্ণ আলাদা হবে। বিভিন্ন সংস্থা তো বটেই, সেই সঙ্গে চাইলেও মাধ্যমটির ব্যবহারকারীদের ওপর নজরদারি করতে পারবে না কোনো দেশের সরকার।

মাইন্ডস ডটকম ব্যবহারিক দিক থেকে আর ১০টা সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমের মতোই হবে। সাইটটির ব্যবহারকারী ফেসবুকের মতোই বিভিন্ন বিষয়ে পোস্ট দেয়ার পাশাপাশি অনুসরণকারীদের ব্যক্তিগত বিষয়ে আপডেট দিতে পারবেন। এছাড়া মন্তব্যের পাশাপাশি পঠিত পোস্ট শেয়ার করতে পারবেন। তবে প্রতিদ্বন্দ্বী প্রতিষ্ঠানগুলো থেকে একদিক থেকে সাইটটি সম্পূর্ণ ভিন্ন হবে। এটি হলো, গ্রাহক তথ্য সংগ্রহের মাধ্যমে অর্থ উপার্জনের কোনো পরিকল্পনা নেই অ্যানোনিমাসের। ফেসবুকসহ বিদ্যমান সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমগুলো গ্রাহক তথ্যের মাধ্যমে অর্থ উপার্জন করে থাকে। এছাড়া সাইটটির সব কার্যক্রমে এনক্রিপশন প্রযুক্তি ব্যবহার করা হবে, যাতে বিজ্ঞাপনদাতা থেকে শুরু করে সরকারি সংস্থা গ্রাহক তথ্য হাতিয়ে নিতে না পারে।