sentbe-top

হাসপাতাল বন্ধ নিয়ে কোরিয়াজুড়ে বিক্ষোভ

অনলাইন প্রতিবেদক, ২১ এপ্রিল, ২০১৩:

জিনজু মেডিকেল সেন্টার বন্ধ করা নিয়ে কোরিয়া জুড়ে চলছে বিতর্ক, সাধারণ মানুষ প্রতিদিনই করছে বিক্ষোভ। জিনজু মেডিকেল সেন্টার বন্ধের প্রস্তাবটি যখন প্রাদেশিক পরিষদে অনুমোদনের অপেক্ষায় আছে তখন এটি নিয়ে বিতর্কের উত্তাপ দিনদিন বেড়ে চলায় অনিশ্চিত অবস্থায় আছে কর্তৃপক্ষ। দক্ষিণ খিয়ংসাং প্রাদেশিক সরকারের মেডিকেল সেন্টার বন্ধের সিদ্ধান্ত শ্রমিক ইউনিয়ন ও প্রগতিশীল রাজনৈতিক দলগুলোর শক্ত বিরোধিতার মুখে পড়েছে। দক্ষিণ খিয়ংসাং প্রাদেশিক পরিষদের সংস্কৃতি ও সমাজকল্যাণ বিষয়ক কমিটির অন্তর্ভুক্ত ক্ষমতাসীন দলের সদস্যরা বিরোধী দলের কাউন্সিলরদের এ বিষয়ে কোন হস্তক্ষেপ করতে দিচ্ছে না এমন অভিযোগ বিতর্ক আরও উস্কে দিয়েছে। কর্তৃপক্ষ প্রাদেশিক পরিষদ ভবনে বিরোধী দলীয় আইন প্রণেতাদের প্রবেশে নিষেধাজ্ঞা জারি করেছে।

জিনজু মেডিকেল সেন্টার

এদিকে গতকাল স্থানীয় সংসদের অধিবেশনে যোগদান করতে যাওয়ার সময় ক্ষমতাসীন স্যানুরী পার্টির এক কাউন্সিলরকে মেডিকেল ট্রেড ইউনিয়নের সদস্যরা বাঁধা দিলে তাঁদের সাথে পুলিশের সংঘর্ষ হয়। এ সময় অন্তত দু’জন বিরোধী দলীয় কাউন্সিলর আহত হন।

স্থানীয় প্রশাসন বলছে, শ্রমিক ইউনিয়নের কারনে মেডিকেল সেন্টারটি আর্থিক দৈন্যদশায় পতিত হয়েছে। প্রাদেশিক সরকারের দাবী অনুযায়ী কাউন্সিল ২০০৮ সাল থেকে এ পর্যন্ত ৪৭ বার চিকিৎসা কার্যক্রম স্বাভাবিক করার লক্ষ্যে অবকাঠামোগত পুনর্গঠনসহ বিভিন্ন পদক্ষেপ নেয়ার চেষ্টা করেছে, কিন্তু তথাকথিত “অভিজাত সমিতি”র নেতাদের ব্যাক্তি স্বার্থে ক্ষমতার অপব্যবহারের কারনে তা সম্ভব হয় নি।

 

মেডিকেল সেন্টার বন্ধের প্রতিবাদে বিক্ষোভ

তবে হাসপাতালটির শ্রমিক নেতারা এমন অভিযোগ প্রত্যাখ্যান করে বলেছেন শ্রমিকরা ৮ মাস ধরে বেতন পাচ্ছেন না। সরকারি স্কেল অনুসারে মাসিক যে বেতন পাওয়ার কথা সেটাও তাঁরা পান না বলে পাল্টা অভিযোগ করেন।

এ পরিস্থিতিতে দক্ষিণ খিয়ংসাং প্রদেশের গভর্নর হং জুন-পো’র কড়া সমালোচনা করে এবং এ বিষয়ে স্যানুরী পার্টির অবস্থান পরিষ্কার করার দাবী জানিয়ে যৌথভাবে মিছিল-সমাবেশ করেছে প্রধান বিরোধী দল ডিইউপি এবং বামপন্থী জোট ইউপিপি।

sentbe-top