cosmetics-ad

শান্ত থাকার আহ্বান জানালেন দক্ষিণ কোরিয়ার ভারপ্রাপ্ত প্রেসিডেন্ট

base_1481388603-4

শুক্রবার দুর্নীতির দায়ে অভিযুক্ত প্রেসিডেন্ট পার্ক গুন হের অভিশংসনের পক্ষে রায় দিয়েছে দক্ষিণ কোরিয়ার পার্লামেন্ট। পার্লামেন্টের এ রায়ের পর প্রধানমন্ত্রী হং কু আন ভারপ্রাপ্ত প্রেসিডেন্টের দায়িত্ব গ্রহণ করেছেন। গতকাল জাতীয় নিরাপত্তা নিয়ে উদ্বেগের বদলে জনগণকে শান্ত থাকার আহ্বান জানানোর পাশাপাশি দেশটির অর্থবাজারকেও আশ্বস্ত করেছেন তিনি। খবর রয়টার্স।

সাম্প্রতিক সময়ে দক্ষিণ কোরিয়ার অর্থনীতি ও রাজনৈতিক অঙ্গনে চরম অস্থিতিশীলতা বিরাজ করছে। উত্তর কোরিয়ার সঙ্গে দ্বন্দ্বপূর্ণ সম্পর্ক ও যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট পদে ডোনাল্ড ট্রাম্পের আকস্মিক জয়ে প্রধান দুই বাণিজ্যিক অংশীদার যুক্তরাষ্ট্র ও চীনের সঙ্গে দক্ষিণ কোরিয়ার সম্পর্ক দোদুল্যমান অবস্থায় রয়েছে। এমতাবস্থায় পার্ক গুন হের অভিশংসন পরিস্থিতিকে আরো জটিল করে তুলেছে। তবে শুক্রবার দক্ষিণ কোরিয়ার সঙ্গে সুসম্পর্ক ও মিত্রতা অটুট থাকার কথা জানিয়েছে হোয়াইট হাউজ।

হং জানান, দক্ষিণ কোরিয়ায় বিভ্রান্তি সৃষ্টির লক্ষ্যে উত্তর কোরিয়া সাইবার হামলাসহ যেকোনো ধরনের হামলা পরিচালনা করতে পারে। তিনি বলেন, সরকার বর্তমানে জাতীয় নিরাপত্তা নিশ্চিতকরণের বিষয়টি অগ্রাধিকার দিচ্ছে। এছাড়া উত্তর কোরিয়ার যেকোনো প্ররোচনা মোকাবেলায় উচ্চ সতর্কতা অবলম্বন করছে সেনাবাহিনী। সরকারি কর্মচারীদের দায়িত্ব পালনের সময় সতর্কতা অবলম্বনের পরামর্শ দিয়েছেন তিনি। এছাড়া গতকাল পাক কুন হের বিরুদ্ধে আয়োজিত বিক্ষোভ র্যালির নিরাপত্তা ব্যবস্থা নিশ্চিত করতে কর্তৃপক্ষকে নির্দেশ প্রদান করেন হং।

এক বৈঠকে হং বলেন, অর্থ ও বৈদেশিক বাজার তুলনামূলকভাবে স্থিতিশীল রয়েছে। উত্তর কোরিয়াও কোনো ধরনের অসঙ্গতিপূর্ণ পদক্ষেপ গ্রহণ করেনি। এর আগে ব্যাংক অব কোরিয়া জানায়, অর্থবাজারে অভিশংসন ভোটের ফলাফল তেমন প্রভাব বিস্তার করবে না। এর পরেও সতর্কতা হিসেবে নিবিড়ভাবে বাজার পর্যবেক্ষণের নির্দেশ দিয়েছেন ব্যাংক অব কোরিয়ার গভর্নর লি জু-ইয়োল।

উল্লেখ্য, পার্কের বিরুদ্ধে দীর্ঘদিনের বান্ধবী ছোয়ে সুন সিলের অপকর্মে সহায়তার অভিযোগ রয়েছে। ২৫ নভেম্বর মেয়াদ শেষের পূর্বেই (ফেব্রুয়ারি, ২০১৮) প্রেসিডেন্ট পদ থেকে পার্ক গুন হের অভিশংসনের দাবি তোলে দেশটির প্রধান বিরোধী দল ডেমোক্রেটিক পার্টি। এর পরিপ্রেক্ষিতে শুক্রবার পার্লামেন্টে অভিশংসন ভোট অনুষ্ঠিত হয়। পার্লামেন্টের ৩০০ আসনের দুই-তৃতীয়াংশ (২০০) ভোট দরকার হলেও অভিশংসনের পক্ষে ভোট পড়ে ২৩৪টি। পার্ক গুন হের বিরুদ্ধে ভোট দিয়েছেন তার রাজনৈতিক দল সেনুরি পার্টির অন্তত ৬০ জন সদস্য।

বর্তমানে অভিশংসন ভোটের ফলাফল সাংবিধানিক আদালতের অনুমোদনের অপেক্ষায় রয়েছেন। সাংবিধানিক আদালতের নয়জন বিচারকের অন্তত ছয়জন ভোটের পক্ষে রায় দিলে অভিশংসন প্রক্রিয়া কার্যকর হবে। দক্ষিণ কোরিয়ার আইন অনুযায়ী, প্রেসিডেন্ট হিসেবে পার্ক গুন হে ক্ষমতা ত্যাগ করার ৬০ দিনের মধ্যে বাধ্যতামূলকভাবে নির্বাচনের আয়োজন করতে হবে।