sentbe-top

কাতারে দুর্ভোগে ৩০ হাজার বাংলাদেশি

Qatar-Samal-Cityকাতারের আল শামাল সিটিতে মানি এক্সচেঞ্জের কোনো শাখা না থাকায় দুর্ভোগে পড়েছেন সেখানকার ৩০ হাজার বাংলাদেশি। বেশিরভাগই অবৈধ হুন্ডির মাধ্যমে দেশে টাকা পাঠাতে বাধ্য হচ্ছেন। বৈধ পথে রেমিটেন্স পাঠানোর জন্য আল শামাল সিটিতে একটি মানি এক্সচেঞ্জ প্রতিষ্ঠায় বাংলাদেশের সরকার ও কেন্দ্রীয় ব্যাংককে উদ্যোগী হওয়ার দাবি জানিয়েছেন বাংলাদেশি প্রবাসীরা।

রাজধানী দোহা থেকে ১৫০ কিলোমিটার দূরের পথ আল শামাল সিটি, এই সিটিতে বসবাস করেন ৫০ হাজার অভিবাসী এদের মধ্যে প্রায় ৩০ হাজার বাংলাদেশি। কিন্তু এখানে নেই কোনো মানি এক্সচেঞ্জের শাখা। ফরে দেশে টাকা পাঠাতে হলে প্রবাসীদের ডিউটি বন্ধ করে কাতারি একশ রিয়াল খরচ করে যেতে হয় অন্য সিটিতে।

কাতার প্রবাসী ব্যবসায়ী আল শামাল সিটির মাহফুজুর রহমান বলেন, প্রবাসী বাংলাদেশিদের এই দুর্ভোগ লাঘবে আল শামাল সিটিতে একটা মানি এক্সচেঞ্জ প্রতিষ্ঠা জরুরি।

বাংলাদেশ ন্যাশনাল ব্যাংকের আরবিয়ান এক্সচেঞ্জ কাতার শাখার জেনারেল ম্যানেজার নুরুল কবির চৌধুরী বলেন, কাতার সেন্ট্রাল ব্যাংকের অনুমোদন পেলে আল শামাল সিটিতে বাংলাদেশ ন্যাশনাল ব্যাংকের মালিকানাধীন আরাবিয়ান এক্সচেঞ্জের শাখা করবেন।

প্রসঙ্গত, কাতার বর্তমানে বাংলাদেশের দ্বিতীয় শীর্ষ শ্রমবাজার। নির্মাণ শ্রমিক, গৃহকর্মী, রেস্তোরাঁ, মৎস্যজীবী, ইমামতি এমনকি ব্যবসা বাণিজ্যসহ বিভিন্ন ক্ষেত্রে কাতারে ৪ লাখ বাংলাদেশি কর্মরত আছেন। দেশটি থেকে বছরে রেমিট্যান্স আয় প্রায় দশ হাজার কোটি টাকা।

sentbe-top