cosmetics-ad

অস্ট্রেলিয়াকে হারানোর ফর্মুলা জানালেন মাশরাফি

mashrafee
ফাইল ছবি

বাংলাদেশ জাতীয় ক্রিকেট দলের বর্তমান ক্রিকেটারদের মধ্যে অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে টেস্ট খেলেছেন, বলতে গেলে আছেনই একজন। তিনি মাশরাফি বিন মর্তুজা। অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে যে চারটি টেস্ট খেলেছে বাংলাদেশ, তার সব ক’টিতেই খেলেছেন মাশরাফি। কিন্তু এখনও ক্রিকেট না ছাড়লেও, ১১ বছর পর অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে টেস্ট সিরিজে দর্শক হয়েই থাকতে হচ্ছে মাশরাফিকে।

জাতীয় ওয়ানডে দলের অধিনায়ক টেস্ট খেলতে না পারলেও গত পাঁচ সপ্তাহ ধরে চলা বাংলাদেশ ক্রিকেট দলের ক্যাম্পে অংশ নিচ্ছেন তিনি। কাছ থেকে দেখেছেন মুশফিক-সাকিব-তামিমদের প্রস্তুতি। এ কারণে মাশরাফির বিশ্বাস, এবার ঘরের মাঠে অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে দারুণ কিছু করে দেখাতে পারবে বাংলাদেশ।

কিভাবে অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে ভালো করবে বাংলাদেশ- সে ফর্মুলা জানিয়ে দিয়েছেন মাশরাফি। ইএসপিএন ক্রিকইনফোর সঙ্গে এক সাক্ষাৎকারে মাশরাফি নিজের প্রত্যাশার কথা বলতে গিয়ে জানান, চার সিনিয়র ক্রিকেটারের ওপর অনেক প্রত্যাশা তার। এই চার ক্রিকেটারে নিজেদের প্রমাণ করার এখনই সময়। ক্যারিয়ারে এই প্রথম অস্ট্রেলিয়ার মুখোমুখি হতে যাচ্ছেন চার সিনিয়র ক্রিকেটার- সাকিব, মুশফিক, তামিম, মাহমুদউল্লাহ।

মাশরাফি মনে করেন, এই চারজন নিজেদের প্রমাণ করতে পারলেই গত বছর ইংল্যান্ডকে হারানোর পুনরাবৃত্তি ঘটানো সম্ভব। তিনি বলেন, ‘আশা করি, আমাদের চার সিনিয়র এবার নিজেদের মূল্য বোঝাতে সক্ষম হবেন। তারা এমন উদাহরণ তৈরি করবেন, যেটা তরুণরা অনুসরণ করে এগিয়ে যাবে।’

অস্ট্রেলিয়াকে কিভাবে হারানো যায়, সে ফর্মুলা খানিকটা বাতলেও দিয়েছেন ওয়ানডে দলের অধিনায়ক। মাশরাফি বলেন, ‘তামিম রয়েছে ক্যারিয়ারের সেরা ফর্মে। যদি সে এবং ইমরুল কায়েস মিলে ভালো একটা সূচনা এনে দিতে পারে তাহলে সেটা হবে একধাপ এগিয়ে যাওয়া। এরপর আমাদের রয়েছে সাকিব এবং মেহেদী হাসান মিরাজের স্পিন। যদি পেসারদের মধ্যে একজনও অন্তত একটি কিংবা দুটি স্পেল ভালো করতে পারে, অন্তত তিনটি কিংবা চারটি উইকেট নিতে পারে। তাহলে অবশ্যই আমাদের পক্ষে একটা সম্ভাবনা তৈরি হবে। এ ধরনের পরিস্থিতি তৈরি হলে অবশ্যই আমরা ভালো কিছু প্রত্যাশা করতে পারি।’

মাশরাফি মনে করেন, বাংলাদেশ এখন আগের চেয়ে শক্তিশালী দল। মানসিকভাবেও অনেক এগিয়ে। বিশেষ করে গত বছর ইংল্যান্ডকে হারানো এবং শ্রীলঙ্কায় গিয়ে শততম টেস্টে জয় বাংলাদেশের মানসিক শক্তি অনেক বাড়িয়ে দিয়েছে। মাশরাফি বলেন, ‘লড়াই করাই এখন বাংলাদেশের সবচেয়ে বড় শক্তি। হার কিংবা জয়, এখন বাংলাদেশ লড়াই করতে জানে। যে কারণে এখন আমরা একটা ভালো ফলাফল আশা করতে পারি।’

অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে সিরিজ উপলক্ষে বাংলাদেশ যে প্রস্তুতি নিয়েছে, মাশরাফির মতে যে কোনো টেস্ট সিরিজের আগে এটা সেরা প্রস্তুতি। মাশরাফি বলেন, ‘আমি মনে করি, বাংলাদেশ দলের ক্রিকেটাররা সবচেয়ে বেশি কাজ করেছে তাদের মানসিকতা নিয়ে। গত ১৫ বছরে আমাদের সবচেয়ে বড় চিন্তার বিষয় ছিল এই একটি জায়গাতেই। কারণ, আমাদের কোনো ধৈয্য ছিল না। সেঞ্চুরি করার পর একজন ব্যাটসম্যানের চিন্তা করা উচিৎ স্কোরটাকে কিভাবে আরও বড় করা যায়। পরের দিন পর্যন্ত কিভাবে ইনিংসটাকে টেনে নিয়ে যাওয়া যায় সেটা চিন্তা করবে। সেঞ্চুরি করার পর একজন ব্যাটসম্যান কেন চিন্তা করবে না, সেটাকে কিভাবে ডাবল সেঞ্চুরি করা যায়! এটা হয়তো প্রতিদিন হবে না। তবে, সুযোগ কাজে লাগানোর চেষ্টা করাটাই আসল।’