sentbe-top

অস্ট্রেলিয়ার ক্যানবেরায় স্থায়ী ভিসার নতুন সুযোগ

canberra
ক্যানবেরায় ফেডারেল পার্লামেন্ট ভবন।

শিক্ষা, কর্ম কিংবা বসবাস—যেকোনো দিক থেকেই অস্ট্রেলিয়া অভিবাসীদের জন্য অন্যতম জনপ্রিয় দেশ। তবে বেশ অনেক দিন ধরেই দেশটির সরকার অভিবাসনসংক্রান্ত বিভিন্ন আইন পরিবর্তন করে আসছে। নতুনত্ব এসেছে বিভিন্ন অভিবাসন আইনে। পরিবর্তিত হচ্ছে দেশটিতে প্রবেশ, বসবাস ও নাগরিকত্ব গ্রহণের নীতিমালা। সে ধারা চলমান রয়েছে দেশটির বিভিন্ন রাজ্যগুলোতেও।

এরপরও অনেকটা আশার আলোও আছে দেশটিতে উজ্জ্বল ভবিষ্যৎ গড়ে তোলার। অস্ট্রেলিয়ার রাজধানী ক্যানবেরায় শিক্ষার্থী ভিসা নিয়ে এসে স্থায়ীভাবে বসবাসের কিছু সুযোগ তৈরি হয়েছে। তবে এ ক্ষেত্রে কিছু আবশ্যিক শর্তও রয়েছে।

গত ৫ জুলাই অস্ট্রেলিয়ার ক্যাপিটাল টেরিটরি (এসিটি) অর্থাৎ ক্যানবেরা রাজ্য সরকার এক ঘোষণায় এ তথ্য জানিয়েছে। ফলে এখন থেকে ক্যানবেরায় শিক্ষাগ্রহণ ও কাজ করার শর্ত পূরণ করে স্থায়ীভাবে বসবাসের আবেদন করতে পারবেন নির্ধারিত আবেদনকারীরা। এ ক্ষেত্রে জেনারেল স্কিলড মাইগ্রেশন ক্যাটাগরিতে ১৯০ ভিসা শ্রেণির আওতায় অস্ট্রেলিয়ান ক্যানবেরা রাজ্য কর্তৃক এ মনোনয়ন পেতে হবে। তবে আবেদনকারী অস্ট্রেলিয়া কিংবা ক্যানবেরায় বসবাস করছেন কিনা বা দেশটির বাইরে অবস্থান করছেন কিনা তার ওপর ভিত্তি করে আবশ্যিক শর্তের কিছু পার্থক্য ও সুবিধা রয়েছে।

শিক্ষার্থী ভিসায় আবেদন করতে হলে: এসিটি (ক্যানবেরা) মনোনয়ন নিয়ে শিক্ষার্থী ভিসায় আবেদন করতে আবেদনকারীকে অবশ্যই আবেদনের পূর্বে ১২ মাস ক্যানবেরায় বাস করতে হবে।

আবেদনের আগে দুই বছরের মধ্যে অস্ট্রেলিয়ার যেকোনো রাজ্য বা অঞ্চলে শিক্ষা গ্রহণ বা বসবাস না করলে: অস্ট্রেলিয়ার সরকারের ক্রিকোস (CRICOS) নিবন্ধিত কোনো শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান থেকে কোর্স পাস হতে হবে। কোর্সগুলো স্নাতক ডিগ্রি, ডিপ্লোমা, অ্যাডভান্সড ডিপ্লোমা বা সার্টিফিকেট ৩-এ হতে হবে।

এসিটি মনোনয়নে অস্ট্রেলিয়ার সরকার কর্তৃক নিবন্ধিত পেশা তালিকায় কাজ করার অভিজ্ঞতা থাকতে হবে। এ ছাড়া কমপক্ষে কাজের দুটি পেস্লিপ দেখাতে হবে। তবে পূর্ণকালীন কাজ করতে হবে এমন কোনো শর্ত নেই।

আবেদনের আগে দুই বছর অস্ট্রেলিয়ার যেকোনো রাজ্য বা অঞ্চলে শিক্ষা গ্রহণ বা বাস করে থাকলে: ক্রিকোস নিবন্ধিত কোনো শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান থেকে স্নাতক পাস হতে হবে। তবে সেই সঙ্গে পূর্ণকালীন কাজের অভিজ্ঞতা থাকতে হবে। শিক্ষার্থী হলে সপ্তাহে ২০ ঘণ্টা কাজ পূর্ণকালীন হিসেবে বিবেচিত হবে।

অস্ট্রেলিয়ার বাইরে থেকে আবেদন করলে: আবেদনকারী যদি অস্ট্রেলিয়ার বাইরে থেকে এসিটি মনোনয়নের জন্য আবেদন করেন তবে, চাহিদা তালিকায় (ডিমান্ড লিস্ট) থাকা পেশা বা কোর্সে আবেদন করতে হবে। ক্যানবেরায় পরিবারের কোনো সদস্য থাকতে হবে। ডিমান্ড লিস্টে থাকা পেশায় মনোনীত হতে হবে।

তবে এ ভিসায় অস্ট্রেলিয়ার বাইরে থেকে আবেদন করে মনোনীত হয়ে আসলে সঠিক কাজ পেতে কিছুটা সময় লাগে। আবেদনের পূর্ববর্তী দুই বছরে অস্ট্রেলিয়ায় বাস করলে এ ক্যাটাগরির ভিসায় আবেদন করা যাবে না।

এসিটি মনোনয়নের জন্য https://forms.canberrayourfuture.com.au/NewSMApplication.aspx এই ওয়েবসাইটে গিয়ে আবেদন করতে হবে। আবেদনের জন্য অফেরতযোগ্য ফি রয়েছে।

কাউসার খান: অভিবাসন আইনজীবী। ইমেইল: immiconsultants@gmail.com
সৌজন্যে: প্রথম আলো

sentbe-top