cosmetics-ad

বাংলাদেশের বিপক্ষে অস্ট্রেলিয়ার লজ্জার রেকর্ড!

bangladesh-australia
মাথা নত ওয়ার্নারের, হাসছে তামিম ইকবাল-মুশফিকুর রহিমরা। পার্থক্য গড়ে দিয়েছে এই দৃশ্যগুলোও

অস্ট্রেলিয়া জাতীয় ক্রিকেট দল যেন দুঃস্বপ্নের মধ্যে দিয়ে যাচ্ছে। বাংলাদেশের বিপক্ষে ১১ বছর পর টেস্ট খেলতে এসে ম্যাচ নিয়ে বাঁচা-মরার লড়াইতে নেমেছে স্টিভেন স্মিথের দল। ব্যর্থতার পশরা সাজাতে গিয়ে গড়েছে লজ্জার রেকর্ড। এই ম্যাচের ইনিংসেই বাংলাদেশের বিপক্ষে সবচেয়ে কম রানে আউট হয়েছে তারা।

মিরপুর শেরে বাংলা জাতীয় ক্রিকেট স্টেডিয়ামে সোমবার নিজেদের প্রথম ইনিংসে ২১৭ রান তুলতেই গুটিয়ে যায় অস্ট্রেলিয়া। এর আগে বাংলাদেশের করা ২৬০ রানের জবাবে খেলতে নামে তারা। রোববার শেষ বিকেল থেকেই শুরু হয়েছিলো ওয়ার্ন-খাজাদের উইকেট বিলিয়ে দেওয়ার উৎসব। পরদিনও সেই ধারাবাহিকতা বজায় থাকলো।

এই ইনিংসের জন্য হলেও, সাকিবকে হয়তো আজীবন মনে রাখবে অস্ট্রেলিয়া। ব্যাট হাতে ৮৪ রান করার পর বাঁ-হাতি এই স্পিনার, বল হাতে একাই নিয়েছেন পাঁচ উইকেট। অস্ট্রেলিয়ান ব্যাটসম্যানদের সাজঘরে ফেরানোর দায়িত্ব নিয়েছিলেন আরেক স্পিনার, মেহেদী হাসান মিরাজ। ডানহাতি মিরাজ নিয়েছেন তিন উইকেট।

সবমিলিয়ে স্পিনারদের কাছেই গুটিয়ে গেছে পুরো অস্ট্রেলিয়া দল। ফলাফল, নিজেদের ক্রিকেট ইতিহাসে বাংলাদেশের বিপক্ষে সর্বনিম্ন রানের রেকর্ড। এ নিয়ে টেস্টে পঞ্চমবারের মতো মুখোমুখি হয়েছে দুই দল। এর আগে বাংলাদেশের বিপক্ষে টেস্টে সর্বনিম্ন রানের ইনিংসটি ছিলো ২৬৯ রানের। ২০০৬ সালে ফতুল্লার খান সাহেব ওসমান আলী ক্রিকেট স্টেডিয়ামে প্রথম ইনিংসে বাংলাদেশের করা ৪২৭ রানের জবাবে ২৬৯ রানে অলআউট হয় অস্ট্রেলিয়া দল। ওই ইনিংসেও ত্রাতা হয়েছিলেন এক বাঁ-হাতি স্পিনার। তিনি বাংলাদেশের স্পিন কিংবদন্তি সাবেক ক্রিকেটার মোহাম্মদ রফিক।