এরদোয়ানের বিরুদ্ধে অভিনব প্রতিবাদ

erdoganতুরস্কে ক্ষমতাসীন প্রেসিডেন্ট এরদোয়ানের বিরুদ্ধে অভিনব প্রতিবাদ চলছে। দেশটির সামাজিক যোগাযোগের মাধ্যমগুলোতে ‘তামাম’ শব্দটি হ্যাশট্যাগ দিয়ে বিশ লাখেরও বেশি বার রিটুইট করা হয়েছে। এই হ্যাশট্যাগের মাধ্যমে এরদোয়ানকে পদত্যাগের আহ্বান জানানো হচ্ছে।

এর আগে গত মঙ্গলবার ১৫ বছর ধরে তুরস্কের ক্ষমতায় থাকা প্রেসিডেন্ট এরদোয়ান দেশটির পার্লামেন্টে আগামী ২৪ জুন মধ্যবর্তী নির্বাচনের তারিখ ঘোষণা করে বলেন, যদি কখনও দেশের জনগণ যথেষ্ট হয়েছে বলে জানায় তাহলে আমরা অবশ্যই সরে দাঁড়াবো।

মূলত এরপরই ‘তামাম’ (যথেষ্ট) শব্দটি লিখে হ্যাশট্যাগ প্রচারণা শুরু হয়। এই প্রচারণার মাধ্যমে তুরস্কের জনগণ এরদোয়ানকে এই বার্তা দিতে চাচ্ছেন যে, যথেষ্ট হয়েছে, এবার হটো। হ্যাশট্যাগকে কেন্দ্র করে বর্তমানে তুরস্কের অভ্যন্তরীন রাজনীতি উত্তপ্ত হয়ে উঠেছে। হ্যাশট্যাগের পাশাপাশি অনেকেই এরদোয়ানকে ব্যঙ্গ করে বিভিন্ন মন্তব্য ও কার্টুন পোস্ট করছেন।

এদিকে ‘তামাম’ হ্যাশট্যাগের বিপরীতে তুরস্কের সরকারি অ্যাকাউন্টগুলো ‘দেভাম’ (চালিয়ে যাও) হ্যাশট্যাগের প্রচার শুরু করেছে। কিন্তু বিশ লাখ বার রিটুইট হওয়া ‘তামাম’ হ্যশট্যাগের তুলনায় ‘দেভাম’ হ্যাশট্যাগটি মাত্র তিন লাখ বার রিটুইট হয়েছে।

তবে ‘তামাম’ শব্দটি এরদোয়ান প্রশাসনকে ভাবিয়ে তুললেও এরদোয়ান এখনও বেশ জনপ্রিয় তুরস্কে। স্থিতিশীল অর্থনৈতিক প্রবৃদ্ধি নিশ্চিত করার কারণে তুরস্কের গ্রামাঞ্চলের শ্রমজীবী মানুষের কাছে এরদোয়ান একজন সফল শাসক। ফলে এখনও এরদোয়ানের ভয়ের কিছু নেই বলে মন্তব্য করেছেন দেশটির রাজনৈতিক বিশ্লেষকরা।