sentbe-top

ক্রোয়েশিয়ার প্রেসিডেন্ট সম্পর্কে কিছু অজানা তথ্য

crotia-presidentরাতে ‘ফ্রান্স- ক্রোয়েশিয়া’ ফাইনাল ম্যাচ অনুষ্ঠিত হবে। তবে আলোচনায় রয়েছেন ক্রোয়েশিয়ার প্রেসিডেন্ট কোলিন্দা গ্র্যাবার। গ্যালারিতে বসে খেলা দেখেছেন এই সুন্দরী প্রেসিডেন্ট। গায়ে দলের জার্সি পরে সারাক্ষণ দলের জন্য দিয়েছেন। দলের জয়ের পরে তিনি নেচে আনন্দ উদযাপন করেছেন। বিশ্বকাপের সবটুকু আলো তিনি কেড়ে নিয়েছেন নিজের গ্লামার দিয়ে। সে কারণেই এই মুহুর্তে বিশ্বের সবচেয়ে আলোচিত নাম কোলিন্দা। এখন জেনে নিন ক্রোয়েশিয়ার প্রেসিডেন্ট কোলিন্দা গ্র্যাবার সম্পর্কে।

কোলিন্দা ক্রোয়েশিয়ার রিজেক নামক স্থানে ২৯ এপ্রিল ১৯৬৮ সালে জন্মগ্রহণ করেন। তিনিই হলেন ক্রোয়েশিয়ার প্রথম মহিলা প্রেসিডেন্ট। তিনি ক্রোয়েশিয়ার একমাত্র সর্বকনিষ্ঠ প্রেসিডেন্ট। ২০১৫ সালের ফেব্রুয়ারিতে ক্ষমতা গ্রহণ করার সময় তার বয়স ছিল ৪৬ বছর যা ক্রোয়েশিয়ার ইতিহাসে সর্বনিম্ন। ‘জাগরিব বিশ্ববিদ্যালয়’ থেকে আন্তর্জাতিক সম্পর্ক বিষয়ে কোলিন্দা স্নাতকোত্তর সম্পন্ন করেন।

তিনি রোমান ক্যাথলিক চর্চা করেন এবং ঘোষণা দেন ক্রিস্টান ধর্মের আনুগত্য। ১৯৯৬ সালে তিনি জ্যাকভ কিতারোভিকে বিয়ে করেন। তাদের ঘরে দুই সন্তান আছে। তিনি ইংরেজি, পর্তুগিজ ও স্প্যানিশ ভাষায় অনর্গল কথা বলতে পারেন। এছাড়া ইটালিয়ান, ফ্রেন্স এবং জার্মান ভাষা বুঝতে তার কোন সমস্যা হয় না।

কোলিন্দা বর্তমানে বিশ্বের সবচেয়ে আবেদনময়ী প্রেসিডেন্ট। তার বয়স এখন ৫০ বছর। তবুও বয়স থাকে দমাতে পারেনি। ৫ ফুট ৬ ইঞ্চি উচ্চতার এই প্রেসিডেন্ট মাঝে মাঝেই বিকিনি পরে সমুদ্র সৈকতে সময় কাটান।

sentbe-top