যুক্তরাষ্ট্রে হিজাব পরে স্কুলে যাওয়ায় মুসলিম ছাত্রীকে মারধর

hijabযুক্তরাষ্ট্রে হিজাব পরে স্কুলে যাওয়ায় এক মুসলিম ছাত্রীকে বেধড়ক মারধর করেছে অপর এক ছাত্রী। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ভাইরাল হয়েছে ভিডিওটি। এরপরই পিটার্সবার্গের চার্টিয়ের ভ্যালি হাইস্কুলের ওই ঘটনার ভিডিও নিয়ে রীতিমত তোলপাড় শুরু হয়েছে দেশটিতে।

মধ্যপ্রাচ্যভিত্তিক প্রভাবশালী সংবাদ মাধ্যম আলজাজিরা তাদের ফেসবুক পেজে ভিডিওটি শেয়ার করার পর সামাজিক মাধ্যমে তুমুল হইচই শুরু হয়। ভিডিওতে দেখা যাচ্ছে, স্কুলের বাথরুমে হিজাব পরিহিত এক ছাত্রীর সঙ্গে কথাকাটাকাটি করছে আরেক ছাত্রী। এ পর্যায়ে দ্বিতীয় ছাত্রীটি হিজাব পরিহিত ছাত্রীটিকে মারতে শুরু করে। গালাগালি আর এলোপাতাড়ি ঘুষি চলতে থাকে।

সামাজিকমাধ্যমে ভিডিওটি ছড়িয়ে পড়ার পর স্থানীয় কাউন্সিল অন আমেরিকান-ইসলামিক রিলেশনস এই ঘটনার নিরপেক্ষ তদন্তের জন্য ফেডেরাল অফিসারদের অনুরোধ জানিয়েছে। তারা ভুক্তভোগী ছাত্রীকে আইনি সহায়তার ঘোষণা দিয়েছে।

এ ঘটনায় চার্টিয়েস ভ্যালি স্কুল ডিস্ট্রিক্টের একটি বিবৃতি দিয়ছে। সেখানে বলা হয়েছে, চার্টিয়েস ভ্যালি স্কুল ডিস্ট্রিক্ট কোনো ধরনের হিংসার ঘটনাকে বরদাশত করবে না। ডিস্ট্রিক্ট সব ছাত্রছাত্রীর জন্য নিরাপত্তা ও স্কুলে শিক্ষার উপযুক্ত পরিবেশ বজায় রাখতে বদ্ধপরিকর।

Teen filmed attacking student wearing hijab

"You're lucky you're from another language. I will crush you …"This US teen who was filmed attacking a Muslim student in a school bathroom may be facing criminal charges.➔ Watch the video (+1:00 mins) ▶

Posted by Al Jazeera English on Wednesday, December 19, 2018