cosmetics-ad

ভারতে গোমাংস রাখার অভিযোগে নারীসহ ৩ মুসলিমকে মারধর

india-muslim

ভারতের লোকসভা নির্বাচনের ফলাফল সামনে আসতে না আসতেই আবারও গোরক্ষকদের তাণ্ডব শুরু হয়েছে। গোমাংস পাচারের অভিযোগে এক নারীসহ তিন মুসলিমকে গাছে বেঁধে মারধর করা হয়েছে। মধ্যপ্রদেশের সিওনিতে এই ঘটনা ঘটেছে। এই ঘটনায় একজনকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।

মারধরের শিকার ওই মুসলিমরা জানিয়েছেন, তাদের শুধু গাছে বেঁধেই পেটানো হয়নি, বরং ‘জয় শ্রী রাম’ ধ্বনি উচ্চারণ করতেও বাধ্য করানো হয়েছে। প্রত্যক্ষদর্শীরা জানিয়েছেন, একটি অটো রিকশায় করে গোমাংস নিয়ে সিওনি হয়ে যাচ্ছিলেন এক নারীসহ তিন মুসলিম।

কোনভাবে সেই খবর পৌঁছে যায় গোরক্ষকদের কানে। সঙ্গে সঙ্গে লাঠি, বাঁশ নিয়ে অটো রিকশাটিকে তাড়া করেন গোরক্ষকরা। ধরেও ফেলেন অটো রিকশার ওই তিন আরোহীকে। তারপর তাদের গাড়ি থেকে নামিয়ে একটি গাছের সঙ্গে বেঁধে ফেলা হয়। তাদের মাটিতে ফেলেও প্রচণ্ড মারধর করা হয়। রাস্তায় দাঁড়িয়ে এ দৃশ্য দেখেছেন পথচারীরা। কিন্তু কেউই এগিয়ে আসেননি।

মারধরের পর ‘জয় শ্রী রাম’ ধ্বনি দিতে বাধ্য করা হয় মুসলিমদের। পুরো ঘটনার ভিডিও পরে সামাজিক মাধ্যমে ভাইরাল হয়ে যায়। ওই ঘটনার তীব্র নিন্দা করে এআইএমআইএম দলের প্রধান আসাদুদ্দিন ওয়াইসি এক টুইট বার্তায় লিখেছেন, মোদির ভোটাররা এভাবেই আবারও মুসলিমদের উপর অত্যাচার শুরু করে দিল। এটাই নতুন ভারতের ছবি।