cosmetics-ad

কাশ্মীর নিয়ে দক্ষিণ কোরিয়ার দারস্থ পাকিস্তান

pak-korea

ভারত অধিকৃত কাশ্মীর পরিস্থিতি নিয়ে দক্ষিণ কোরিয়ার দারস্থ হয়েছে পাকিস্তান। শুক্রবার পাক পররাষ্ট্রমন্ত্রী শাহ মাহমুদ কোরেশি দক্ষিণ কোরিয়ার তার সমকক্ষ কং কিউং-ওয়াকে ভারত অধিকৃত জম্মু-কাশ্মীরের বর্তমান পরিস্থিতি সম্পর্কে অবহিত করেন। দক্ষিণ কোরিয়ার পররাষ্ট্রমন্ত্রীর সঙ্গে টেলিফোনে কথোপকথনের পর কাশ্মীর নিয়ে তার বক্তব্য বিস্তারিত বিবৃতি দেন কোরেশি। খবর পাকিস্তানের টেলিভিশন জিয়ো টিভির।

মাহমুদ কোরেশিকে দক্ষিণ কোরিয়ার পররাষ্ট্রমন্ত্রী টেলিফোনে বলেছেন, বিরোধীয় জম্মু-কাশ্মীর বিষয়ে ভারতের এটি এক তরফা সিদ্ধান্ত; যা আন্তর্জাতিক আইন ও ইউএনএসসি রেজুলেশনের লঙ্ঘন ছিল। তিনি জোর দিয়ে বলেছেন, ভারত অধিকৃত জম্মু ও কাশ্মীরে এমন পদক্ষেপ এ অঞ্চলে শান্তি ও নিরাপত্তার জন্য মারাত্মক ঝুঁকিপূর্ণ। পারমাণবিক অঙ্গন নিয়ে তিনি ভারতের প্রতিরক্ষামন্ত্রীর দায়িত্বজ্ঞানহীন ও আগ্রাসী বক্তব্যের বিষয়েও ইঙ্গিত করেছেন বলে জানানো হয়।

এ সময় পাক পররাষ্ট্রমন্ত্রী কোরেশি কাশ্মীরের ২৫ দিনের কারফিউয়ের কথা তুলে ধরেন। ভারত অধিকৃত কাশ্মীরে মানবাধিকার লংঘন হচ্ছে, খাবার, জীবন ধারণের জন্য ওষুধ এবং যোগাযোগ বিচ্ছন্ন রয়েছে বলে দ. কোরিয়ার পররাষ্ট্রমন্ত্রীকে জানান তিনি। কারফিউয়ের ফলে ওই অঞ্চলে মানবিক বিপর্যয় হচ্ছে বলেও তিনি অবহিত করেছেন।

এ বিষয়ে দক্ষিণ কোরিয়ার পররাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, কাশ্মীরের বর্তমান পরিস্থিতি নিবিড়ভাবে পর্যবেক্ষণ করা হচ্ছে। তিনি বলেন, দক্ষিণ কোরিয়া মানবাধিকার ও আইনের শাসনকে সমর্থন করে।