sentbe-top

গরমে ত্বকের যত্ন

skin-care
মডেল : নিশাত নাওয়াল সালোয়া, আলোকচিত্রী : পলাশ

প্রচণ্ড গরমে ধুলাবালি আর ঘাম একসঙ্গে হয়ে আমাদের ত্বক হয়ে যায় নিষ্প্রাণ। তাই প্রতিদিনের কর্মব্যস্ততা শেষে ত্বকের জন্য চাই বাড়তি যত্ন। গ্রীষ্মের এ সময়টাতে প্রচণ্ড রোদ আর ভ্যাপসা গরমে আমাদের ত্বক অনুজ্জ্বল হয়ে যায়। ঘাম আর ধুলাবালি একসঙ্গে মিশে ত্বকের লোমকূপের গোড়া বন্ধ হয়ে যায়। ফলে অক্সিজেন বের হতে পারে না। আর ত্বকে ব্রণের আক্রমণ বেশি হয়। তাই বলে কি এ গরমে আমাদের ত্বকের সৌন্দর্য হারিয়ে যাবে?

সুস্থ-সুন্দর ত্বক ধরে রাখতে ত্বকের জন্য দরকার সঠিক পরিচর্যা। রূপচর্যা বিশেষজ্ঞ ফারজানা শাকিল এ সময় ত্বকের ফেসিয়াল সম্পর্কে পরামর্শ দিয়েছেন। ধরন বুঝে ত্বকের যত্ন প্রতিদিনের কর্মব্যস্ততার মধ্যেও আমাদের বাইরে যেতে হয়। আর এ সময় ঘাম ও ধুলাবালির আক্রমণে ত্বকে ময়লা জমে। ফলে ত্বকের স্বাভাবিক উজ্জ্বলতা হারিয়ে যায়। তাই এ সময় সবচেয়ে বেশি জরুরি ত্বক পরিষ্কার-পরিচ্ছন্নতা রাখা। তবে এ সময় ত্বকের ধরন বুঝে পরিচর্যা করা উচিত। যাদের তৈলাক্ত ত্বক তাদের এ সময় সবচেয়ে বেশি ঝামেলা পোহাতে হয়। কারণ তৈলাক্ত ত্বকে ধুলাবালির আক্রমণ বেশি হয়। ফলে ব্রণের সমস্যা দেখা দেয়। তাই তৈলাক্ত ত্বক সবসময় ডিপ ক্লিনিং করতে হবে।

তুলায় টোনার লাগিয়ে ত্বক টোন করে নিতে পারেন। তবে এ সময় সবচেয়ে বেশি জরুরি ফেসিয়াল করা। মাঝে মধ্যে পার্লারে গিয়ে ত্বকের ধরন অনুযায়ী ফেসিয়াল করে নিতে পারেন। এতে ত্বকের উজ্জ্বলতা ফিরে আসবে। চাইলে বাসায় বসেও প্যাক বানিয়ে নিতে পারেন। আপনি কয়েক ধরনের প্যাক তৈরি করতে পারেন। টক দই, মুলতানি মাটি, লেবুর খোসা একসঙ্গে মিশিয়ে প্যাক তৈরি করতে পারেন। আবার শসার সঙ্গে টক দই ও মধু মিশিয়ে পেস্ট করে মুখে লাগিয়ে ১৫ মিনিট রাখুন। তারপর ঠাণ্ডা পানিতে ধুয়ে ফেলুন। তবে অনেকের ত্বকে মধু সহ্য হয় না। তারা সব ধরনের প্যাকে মধু এড়িয়ে চলুন। কমলা, আপেল ও আলু তৈলাক্ত ত্বকের জন্য উপকারী। এসব প্যাক তৈরিতে ব্যবহার করতে পারেন।

যাদের মিশ্র ত্বক তাদের চিন্তার কোনো কারণ নেই। কারণ মিশ্র ত্বকের জন্য বাড়তি যত্নের প্রয়োজন নেই। ক্লিনজার দিয়ে নিয়মিত মুখ ধুলেই সুস্থ থাকবে ত্বক। চাইলে যে কোনো ধরনের প্যাক ব্যবহার করতে পারেন মিশ্র ত্বকে। মাসে একবার পার্লারে গিয়ে অ্যালোভেরা, ফ্রুট কিংবা ভেজিটেবল ফেসিয়াল করিয়ে নিন। যাদের ত্বক শুষ্ক তাদের এ সময় সচেতন থাকতে হবে। ত্বক পরিষ্কার করার পর ময়েশ্চারাইজার লাগিয়ে নিতে হবে। তবে এ সময় বেশি ভারী ক্রিম না লাগানোই ভালো। নরম ধরনের লোশন এবং ময়েশ্চারাইজার আলতো হাতে ঘষে ত্বকে লাগান। ঘরোয়া প্যাকও তৈরি করতে পারেন। শুধু টক দই ও গাজর একসঙ্গে বেল্গন্ড করে মুখে লাগিয়ে ২০ মিনিট পর ধুয়ে ফেলুন। শুষ্ক ত্বকে উজ্জ্বলতা বাড়াতে ব্যবহার করতে পারেন পাকা কলা। জেনে নিন ষ রোদে বের হওয়ার সময় ছাতা ব্যবহার করবেন। ষ রোদ থেকে বাঁচতে সানস্ক্রিন ব্যবহার করতে পারেন। ষ সবসময় ধুলাবালির প্রকোপ থেকে রক্ষা পেতে বারবার হাত-মুখ ধোয়ার অভ্যাস গড়ে তলুন। ষ এই গরমে সঙ্গে সবসময় পানির বোতল রাখুন।

সূত্রঃ তারুণ্য প্রতিদিন

 

sentbe-top