sentbe-top

রুবেলের সাফল্যে হ্যাপীর উচ্ছ্বাস

rubel-happyবাংলাদেশ বনাম ইংল্যান্ডের ম্যাচে রুবেল হোসেনের অসাধারণ সাফল্যে অভিনন্দন জানিয়ে উচ্ছ্বাস প্রকাশ করেছেন, তার বিরুদ্ধে নারী ও শিশু নির্যাতন আইনে মামলা দায়ের করা চিত্রনায়িকা নাজনীন আক্তার হ্যাপী।

হ্যাপী সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেইসবুকে রুবেলকে উদ্দেশ্যে করে লিখেন, “আমি সত্যিই খুব খুশি। উইকেট পেয়েছে। দারুণ দেখিয়েছো বাবু, চালিয়ে যাও।”

বাংলাদেশের দেওয়া ২৭৬ রানের টার্গেটে ইংল্যান্ডের তখন ১২ বলে দরকার ১৬ রান। ৪৯তম ওভারের প্রথম বলেই টেল এন্ডার স্টুয়ার্ট ব্রডকে বোল্ড করেন রুবেল। উইকেটে এলেন শেষ ব্যাটসম্যান জেমস এন্ডারসন। রুবেলের তোপে তিনিও টিকতে পারেননি। সতীর্থ ব্রডকে অনুসরণ করে তিনিও বোল্ড আউট হন।

ম্যাচ জয়ের আনন্দে আত্মহারা হ্যাপী ফেইসবুকে রুবেলের উদ্দেশ্যে চুমু ছুড়ে লিখলেন, “আমি কিছু বলার ভাষা হারিয়ে ফেলেছি।”

ম্যাচ জয়ের আনন্দ তিনি ভাগ করে নিয়েছেন গ্লিটজের সঙ্গেও।

তিনি বলছেন, “সত্যিই রুবেল দেখিয়ে দিল। রুবেলের উপর আস্থা ছিল। আজকের দিনটা শুধুই রুবেলের। আগামী ম্যাচগুলোতেও রুবেল খুব ভালো খেলুক। সব ক্রিকেটপ্রেমীর মতো আমিও রুবেলের সাফল্য চাই। একইসঙ্গে গোটা টিমকে শুভেচ্ছা জানাচ্ছি। পুরো টিম দারুণ খেলেছে আজ।”

এর আগে ইংলিশ ব্যাটসম্যান ইয়ান বেল ও ইয়ন মরগ্যানের জুটি যখন বাংলাদেশকে চোখ রাঙাচ্ছে, তখনই মোক্ষম আঘাত হানেন রুবেল। একই ওভারে দুই ব্যাটসম্যানকে সাজঘরে পাঠান তিনি।

অথচ এই হ্যাপীই একদিন গ্লিটজকে বলেছিলে“রুবেল বিশ্বকাপে খেলতে পারবে কি পারবে না, তা নিয়ে আমার কোনো মাথা ব্যাথা নেই। দলে কি প্রভাব পড়লো, তা তো আমার ভাবার বিষয় নয়।

আমার কাছে রুবেল কোনো ক্রিকেটার নয়, সেএকজন প্রতারক ও অপরাধী। অপরাধী অপরাধ করে স্বাভাবিক জীবনযাপন করবে, তা আমি মানতে পারছি না। আমি তার শাস্তি চাই।”

চলতি বছর জানুয়ারিতে ক্রিকেটার রুবেল হোসেনের বিরুদ্ধে মামলা করে আলোচনার জন্ম দেন নবাগতা চিত্রনায়িকা হ্যাপী। এমনকি রুবেলের বিশ্বকাপে খেলা ঠেকাতে রিট আবেদনও করেছিলেন তিনি।

sentbe-top