cosmetics-ad

৪০ বছর পর দেশে ফিরলেন অপহৃত দ. কোরিয়ান জেলে

অনলাইন প্রতিবেদক, ১৫ সেপ্টেম্বর ২০১৩, সিউল:

দক্ষিণ কোরীয় একটি মাছ ধরা নৌকার সদস্য উত্তর কোরিয়া কর্তৃক অপহৃত হওয়ার ৪০ বছর পর দেশে ফিরে এসেছেন। শুক্রবার দক্ষিণ কোরিয়ার একটি সরকারি সূত্র এ তথ্য নিশ্চিত করেছে। জন উওক-পিও নামের ৬৮ বছর বয়সী ওই জেলে গেলো মাসের শুরুতে উত্তর কোরিয়া থেকে পালাতে সক্ষম হন এবং সম্প্রতি দেশে ফিরে আসেন। সূত্র জানায়, তাকে এখন জিজ্ঞাসাবাদ করা হচ্ছে। খুব শীঘ্রই তাকে তার পরিবারের সাথে মিলিত হওয়ার সুযোগ দেয়া হবে।

খবরে প্রকাশ, ১৯৭২ সালের ২৮ ডিসেম্বর দক্ষিণ কোরিয়ার পশ্চিম উপকূল সংলগ্ন হলুদ সাগর থেকে ২৫ জন জেলেসহ দুটি মাছধরা নৌকা অপহরণ করে নিয়ে যায় উত্তর কোরিয়া। অপহৃত বাকি জেলেদের কোন খোঁজ আজ পর্যন্ত পাওয়া যায় নি।

উত্তর কোরিয়া থেকে পালিয়ে জন অজ্ঞাত একটি দেশে আশ্রয় নেন এবং দক্ষিণ কোরিয়ার প্রেসিডেন্ট পার্ক গুণ হের কাছে লেখা এক চিঠিতে তাকে দেশে ফিরিয়ে আনতে প্রেসিডেন্টের হস্তক্ষেপ কামনা AEN20130913002951315_01_i

করেন। পরবর্তীতে গণমাধ্যমে প্রকাশিত ওই চিঠিতে জন আরও লেখেন, “জীবনের অবশিষ্ট দিনগুলো পরিবার-পরিজনের সাথে কাটানোর ইচ্ছেটা আমার প্রতিনিয়ত বেড়েই যাচ্ছিল। তাই পালানোর একটা সুযোগ পেয়ে সেটা আর হাতছাড়া করতে পারি নি।

উল্লেখ্য, অপহরণ দুই কোরিয়ার সম্পর্কে কাঁটা হয়ে থাকা ইস্যুগুলোর অন্যতম। আন্তঃকোরিয়া সম্পর্কোন্নয়নে গঠিত দক্ষিণ কোরিয়ার ইউনিফিকেশন মন্ত্রণালয়ের তথ্যমতে কোরিয়া যুদ্ধ চলাকালীন ও পরবর্তী সময়ে প্রায় ৩০০০ দক্ষিণ কোরীয় সামরিক ও বেসামরিক লোক উত্তর কোরিয়া কর্তৃক অপহৃত হয়েছেন।

উত্তর কোরিয়া কর্তৃক অপহৃত দক্ষিণ কোরীয়দের প্রায়ই গুজব ছড়াতে ও গোপন তথ্য সংগ্রহের কাজে ব্যবহার করা হয়ে থাকে। দক্ষিণ কোরিয়া ১৯৫০-৫৩ সালের কোরিয়া যুদ্ধে আটক দক্ষিণ কোরীয় সেনাসহ এযাবতকাল অপহৃত সকল বন্দীদের মুক্তি দিতে পিয়ংইয়ংয়ের প্রতি উপর্যুপরি আহ্বান জানিয়ে আসলেও সমাজতান্ত্রিক মিত্র দেশটি তাতে কখনই সাড়া দেয় নি।