cosmetics-ad

পাইলটের দক্ষতায় বেঁচে গেল ৪৫ বিমান যাত্রী

pilot-imran

ঘটনা গত রোববারের। দুপুর ঠিক ১টা ৪৫ মিনিট। ঢাকা শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর ছাড়ে অভ্যন্তরীণ ফ্লাইট। ফ্লাইটটি নীলফামারীর সৈয়দপুর বিমানবন্দরে যাওয়ার কথা ছিল। কিন্তু উড্ডয়নের কিছু মুহূর্তেই দেখা দেয় বিপত্তি। তাতে হয়তো বিমানে থাকা ৪৫ জন যাত্রীকেই প্রাণ হারাতে হতো।

কিন্তু বিমানটির পাইলট ক্যাপ্টেন আহমেদ ইমরানের নিপুণ দক্ষতায় বেঁচে যান তারা। বিমানটি পরিচালনায় সহযোগিতায় ছিলেন ফার্স্ট অফিসার ইরফান। সংশ্লিষ্ট সূত্র এ তথ্য নিশ্চিত করেছে।

ওই সূত্র জানায়, ঢাকা থেকে ফ্লাইটটি উড্ডয়নের কিছুক্ষণ পরই সামনের কেবিন থেকে হঠাৎ বিকট শব্দের সৃষ্টি হয়। যা টানা ভাইবারেট করছিল। এসময় সামনের ব্যাগেজ দরজা সংকেত দিচ্ছিল এবং এটি খুলে যাচ্ছিল। ওই সময় পাইলট বুঝতে পারেন ইঞ্জিনে কোনো বড় সমস্যা হয়েছে।

তখন ওই পাইলট কর্তৃপক্ষের সঙ্গে দ্রুত যোগাযোগ করে জরুরি অবতরণের জন্য অনুমতি চান। কর্তৃপক্ষের অনুমতির প্রায় ১৫ মিনিটের মধ্যে বিমানটি ঢাকা বন্দরে অবতরণ করানো সম্ভব হয়।

বিমান সূত্র আরো জানায়, হয়তো ওইদিনই বড় কোনো দুর্ঘটনা ঘটতে পারতো। কিন্তু আল্লাহর অশেষ রহমতে সবাই বেঁচে গেছেন। সাধারণত এ ধরনের জরুরি অবতরণ কম হয়। এটা ছিল পুরোটাই অস্বাভাবিক।

বিমানটিতে ৪৫ জন যাত্রী ছিল। জরুরি অবতরণের পর তাদের অন্য ফ্লাইটে করে সৈয়দপুর পাঠানো হয়।

সূত্র- আরটিভি অনলাইন