৫ বছর পর নতুন রূপে জিমেইল

new-gmailগুগলের ই-মেইল সেবা জিমেইলে পরিবর্তন এসেছে। প্রায় পাঁচ বছর পর জিমেইলের নতুন এ সংস্করণে শুধু নকশাই নয়, বেশ কিছু নতুন সুবিধাও যোগ করা হয়েছে।

নতুন এ সংস্করণটি ব্যবহার করতে ব্যবহারকারীদের বার্তা পাঠিয়ে আহ্বান জানানো হয়েছে। যারা সেটি এখনো পাননি, তারা জিমেইলের সেটিংস আইকন চেপে ‘ট্রাই দ্য নিউ জিমেইল’ অপশন নির্বাচন করলেই নতুন সংস্করণটি ব্যবহার করতে পারবেন।

নতুন সংস্করণে জিমেইলের নতুন সুবিধাগুলো দেখে নেওয়া যাক –

ই-মেইলের গোপনীয়তা- নতুন জিমেইলে যুক্ত করা হয়েছে ই-মেইলের গোপনীয়তা রক্ষার সুবিধা। ‘কনফিডেনশিয়াল মোড’ নামের নতুন এ সুবিধায় পাঠানো ই-মেইল নির্দিষ্ট সময় পর স্বয়ংক্রিয়ভাবে মুছে যাবে। অর্থাৎ প্রেরক কোনো ই-মেইলের সঙ্গে এক দিন থেকে পাঁচ বছরের মধ্যে যে সময় নির্দিষ্ট করে দেবেন, ঠিক সে সময় পরেই ই-মেইলটিতে আর পড়া যাবে না।

এছাড়া একই সুবিধা ব্যবহার করে ই-মেইলটি কপি করা, অন্যকে ফরোয়ার্ড করা কিংবা ডাউনলোড করাও নিয়ন্ত্রণ করা যাবে। তবে ই-মেইলের স্ক্রিনশট নেওয়া রোধ করা যাবে না নতুন এ সুবিধায়। সুবিধাটি এখনো সব দেশে উন্মুক্ত করা হয়নি।

ই-মেইলের স্বয়ংক্রিয় উত্তর- জিমেইলের নতুন সংস্করণে ই-মেইলের উত্তর দেওয়া যাবে দ্রুতই। কারণ, জিমেইলে উত্তর দিতে গুগলের কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তা ব্যবহার করা হয়েছে। সঙ্গে মেশিন লার্নিং প্রযুক্তিও থাকছে। এতে জিমেইলে আসা কোনো ই-মেইলের প্রাসঙ্গিক উত্তর কী হতে পারে তা ই-মেইলের বিষয় অনুযায়ী ঠিক করে রাখবে জিমেইল।

যেমন কেউ কোনো সংবাদ ও তার ওয়েবলিংক পাঠিয়ে ই-মেইল করলে সেখানে ‘ঠিক আছে আমি পড়ে দেখব’ এমন উত্তর আগ থেকেই তৈরি করা থাকবে। তবে এসব উত্তর পাঠাতে হবে ব্যবহারকারীকেই।

কাজের পরিকল্পনা করা যাবে জিমেইলেই- একের পর এক ভিন্ন ভিন্ন কাজ যারা করে থাকেন, জিমেইলের নতুন এ সুবিধাটি তাঁদের বেশ কাজে দেবে। জিমেইলের নতুন সংস্করণে ইনবক্সের ডান পাশে নতুন একটি সাইডবার যোগ করা হয়েছে। যেখানে গুগলের নোট সেবা ‘কিপ’, টাস্ক, ক্যালেন্ডারের মতো প্রয়োজনীয় সব অ্যাড-অনস দেওয়া রয়েছে। চাইলে নিজের সুবিধামতো আরও অ্যাড-অনস যোগ করা যাবে।

অর্থসূচক এর সৌজন্যে