প্রবাসীদের ভোট দেয়ার জন্য ব্যালট পেপার পাঠানোর দাবি

electionএকাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে প্রবাসীদের ভোট দেয়ার জন্য ব্যালট পেপার পাঠাতে নির্বাচন কমিশনে চিঠি দিয়েছে প্রবাসী বাঙালি কল্যাণ সমিতি (প্রবাকস)। বৃহস্পতিবার (২০ ডিসেম্বর) প্রধান নির্বাচন কমিশনার (সিইসি) কে এম নূরুল হুদা বরাবর পাঠানো চিঠিতে উল্লেখ করা হয়, ‘প্রবাসী ভোটারদের ভোট দেয়ার ব্যবস্থার জন্য একটি প্রতিনিধি দল চলতি বছরের ২৩ মে আপনার সঙ্গে সাক্ষাৎ করে। ওইসময় আপনি প্রবাসীদের পোস্টাল ব্যালটে ভোট দিতে আহ্বান জানান। এরপর প্রবাকসের পক্ষ থেকে এ ব্যাপারে বিশ্বব্যাপী প্রচারণা চালানো হয়। ইতোমধ্যে ঢাকা, নারায়ণগঞ্জ, মুন্সীগঞ্জ, সিলেট, পাবনা, নোয়াখালী, খুলনাসহ বিভিন্ন জেলা রিটার্নিং অফিসারের কাছে প্রবাসীরা ইমেইল এবং ডাকযোগে ন্যাশনাল আইডি কার্ডের নম্বরসহ আবেদন করেন। কিন্তু অদ্যাবধি বিদেশের কোথাও ব্যালট পেপার পাঠানো হয়নি।’

চিঠিতে আরো উল্লেখ করা হয়, ‘প্রবাসীদের ভোটাধিকার বিদ্যমান আইনে থাকলেও বিগত নির্বাচন কমিশনগুলো কখনোই ভোটাধিকার বাস্তবায়নের উদ্যোগ নেয়নি। প্রবাসীরা কেউ এর আগে পোস্টাল ব্যালটের জন্য আবেদনও করেননি। এবার নির্বাচন কমিশনের সামনে সেই সুযোগ এসেছে। প্রবাসীরা অনেকেই এবার পোস্টাল ব্যালটের মাধ্যমে ভোট দিতে রিটার্নিং অফিসার বরাবর ইমেইলে আবেদন করেছেন। নির্বাচন কমিশনের পক্ষ থেকে রিটার্নিং অফিসারগনের নিকট নির্দেশনা পাঠানো হলে প্রবাসীরা হয়তো প্রথমবারের মতো ভোট দেয়ার সুযোগ পাবে। তাহলে প্রবাসীদের ভোটাধিকার বাস্তবায়নে আপনার সুস্পষ্ট অঙ্গীকার পূরণ হবে। এ ব্যাপারে দ্রুততম সময়ের মধ্যে প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ নিতে সবিনয় আবেদন জানাচ্ছি।’

জানা যায়, জাতীয় সংসদ নির্বাচনে পোস্টাল ব্যালট পেপারের মাধ্যমে প্রবাসীরা বিদেশ থেকে ভোট দিতে পারবেন। ব্যালট পেপারের জন্য বিদেশ থেকে ডাকযোগে জেলা রিটার্নিং অফিসারের কাছে দরখাস্ত করতে হবে। দরখাস্ত ডাকযোগে বাংলাদেশে পৌঁছানোর পর প্রবাসীদের বিদেশের ঠিকানায় ডাকযোগে ব্যালট পেপার পাঠানো হবে। তারপর পছন্দের প্রতীকে ভোট দিয়ে পুনরায় ডাকযোগে রিটার্নিং অফিসারের কাছে ৩০ ডিসেম্বরের আগে ফেরত পাঠাতে হবে।

প্রবাসী যাদের ন্যাশনাল আইডি কার্ড আছে, যারা নির্বাচনের সময় ভোট দিতে বাংলাদেশে যাবেন না এবং পোস্টাল ব্যালটের মাধ্যমে বিদেশ থেকে ভোট দিতে আগ্রহী, তাদের শিগগিরই নিজ নিজ জেলা রিটার্নিং অফিসারের কাছে (জেলা প্রশাসক) পোস্টাল ব্যালটের জন্য দরখাস্ত পাঠাতে হবে। দরখাস্তে ন্যাশনাল আইডি কার্ডের নম্বর, ন্যাশনাল আইডি কার্ডের অপর পৃষ্ঠায় থাকা ঠিকানা উল্লেখ করতে হবে। বিদেশে যে ঠিকানায় ব্যালট পেপার পাঠাতে হবে ওই ঠিকানা অবশ্যই দরখাস্তে উল্লেখ করতে হবে।

এদিকে ভোট দিতে ইচ্ছুক প্রবাসীদের তালিকা নির্বাচন কমিশনে আলাদাভাবে জমা দেয়ার উদ্যোগ নিয়েছে প্রবাসীদের ভোটাধিকার বাস্তবায়নের দাবিতে কর্মরত অরাজনৈতিক সংগঠন প্রবাকস। ভোট দিতে ইচ্ছুক প্রবাসীদের রিটার্নিং অফিসারের কাছে ডাকযোগে প্রদত্ত দরখাস্তের কপি প্রবাকসের কো-অর্ডিনেটর ওমর আলীর কাছে ই-মেইলে (([email protected]) পাঠাতে হবে।

সৌজন্যে- জাগো নিউজ