cosmetics-ad

বোনের বিয়েতে দেশে ফিরে লাশ হলেন মালয়েশিয়া প্রবাসী রুবেল

bogra-news

ছোট বোনের বিয়ের আয়োজন করতে দেশে ফিরে সন্ত্রাসীদের ছুরিকাঘাতে খুন হয়েছেন রুবেল (২৬) নামে এক প্রবাসী যুবক। নিহত রুবেল বগুড়ার শাজাহানপুর উপজেলার হরিনগাড়ী গ্রামের নজরুল ইসলাম সাকিদারের ছেলে।

সোমবার দুপুরে উপজেলার টেংরামাগুর স্ট্যান্ডে প্রকাশ্যে একদল সন্ত্রাসী রুবেলকে ছুরিকাঘাত করে পালিয়ে যায়। গুরুতর আহত অবস্থায় স্থানীয়রা রুবেলকে বগুড়া শহীদ জিয়াউর রহমান মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করায়। এরপর মৃত্যুর কোলে ঢলে পড়েন রুবেল।

রুবেলের বাবা নজরুল ইসলাম সাকিদার বলেন, একটি ফোন পেয়ে রুবেল বাড়ি থেকে বের হয়ে যায়। এরপর ফিরে এলো লাশ হয়ে। ছোট বোনের বিয়ে দিতে দেশে ফিরে লাশ হলো আমার ছেলে। কারা এ ঘটনা ঘটিয়েছে আমি জানি না।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, সোমবার দুপুরে উপজেলার টেংরামাগুর স্ট্যান্ডে তিনটি মোটরসাইকেলযোগে হেলমেট পরা ৭-৮ জনের একদল সন্ত্রাসী এসে রুবেলের বুকে-পিঠে, বগলের নিচে এবং মাথায় ছুরিকাঘাত করে দ্রুত পালিয়ে যায়।

স্থানীয়রা জানান, সম্প্রতি রুবেল তার ছোট বোনকে বিয়ে দিতে মালয়েশিয়া থেকে দেশে আসেন। সোমবার তার বোনকে ছেলে পক্ষের লোকজনের দেখতে আসার কথা। কিন্তু তার আগেই সন্ত্রাসীরা রুবেলের জীবন প্রদীপ নিভিয়ে দিল।

খরনা ইউনিয়নের চেয়ারম্যান সাজেদুর রহমান শাহিন বলেন, হামলাকারীরা এলাকার চিহ্নিত সন্ত্রাসী। এরা এলাকায় সন্ত্রাসের রাজত্ব কায়েম করেছে। রুবেলের মতো একজন শান্ত, ভদ্র ছেলেকে এভাবে ছুরিকাঘাতে হত্যার কারণ আমার জানা নেই। সন্ত্রাসীদের বিরুদ্ধে দ্রুত ব্যবস্থা নিতে প্রশাসনের প্রতি আহ্বান জানাই।

এ বিষয়ে শাজাহানপুর থানা পুলিশের ওসি আজিম উদ্দিন বলেন, প্রবাসীকে হত্যার কারণ জানা যায়নি। এখন পর্যন্ত মামলা হয়নি এবং কাউকে গ্রেফতার করা সম্ভব হয়নি। মামলা হলে এ ঘটনায় জড়িতদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়া হবে।