মালয়েশিয়ায় রমজানের প্রথম জুমায় মাহাথিরের সঙ্গে প্রবাসী বাংলাদেশিরা

malyasia-bdমুসলমানদের আত্মশুদ্ধির মাস রমজান। ১০ মে (শুক্রবার), পবিত্র রমজানের ৫ম দিন এবং প্রথম জুমার নামাজ। মালয়েশিয়ায় এদিন বিভিন্ন মসজিদে মুসল্লিদের ঢল নামে। নামাজ শেষে মহান আল্লাহ রাব্বুল আলামিনের দরবারে বিশ্ব মুসলিম উম্মাহর শান্তি ও বিশ্বে সব অশান্তি থেকে মানবজাতিকে হেফাজতের কামনায় বিশেষ মোনাজাত করা হয়।

নামাজ শুরুর অনেক আগেই মুসল্লিদের আগমনে কানায় কানায় ভরে যায় দেশটির জাতীয় মসজিদ (মসজিদ নেগারা) ও চারপাশ। এ মসজিদে জুমার নামাজে অংশগ্রহণ করেন প্রধানমন্ত্রী ডা. মাহাথির মোহাম্মদ। প্রবাসী বাংলাদেশিরাও এই মসজিদে নামাজ আদায় করেছেন।

malyasia-bdজুমার নামাজ পড়তে আসা কয়েকজন প্রবাসী বাংলাদেশির সঙ্গে কথা হয় এ প্রতিবেদকের। তারা জানান, আমরা রোজা রেখে আল্লাহর কাছে প্রার্থনা করেছি, আমদের জীবনের সব পাপ যাতে খোদা মাফ করে দেন। আমাদের মা-বাবাকে হায়াত দান করেন। আমাদের সত্য ও সঠিক পথে চলার তৌফিক দেন।

মোনায়েম নামের একজন জানান, আমরা যাতে সামনের দিনগুলো ইসলামের আলোয় চলতে পারি এবং আমাদের দেশে যাতে কোনো ধরনের বিশৃঙ্খলা দেখা না দেয়, সেই জন্য আল্লাহর কাছে দোয়া করেছি।

malyasia-bdনামাজ শুরুর আগে বয়ান পেশ করেন জাতীয় মসজিদ নেগারার খতিব তানশ্রী শাইখ ইসমাইল মোহাম্মদ। তিনি বলেন, রমজানের ফজিলত ও গুরুত্ব বোঝাতে পবিত্র কোরআনের সুরা বাকারার ৮৫ নং আয়াতে আল্লাহ রব্বুল আলামিন বলেন, রমজান হলো- এই মাস যে মাসে আমি কোরআন অবতীর্ণ করেছি। এ মাসকে বরকত-রহমত-মাগফেরাতের মাস বলা হয়। এ মাসে রয়েছে শবেকদরের মতো বরকতময় রাত, যা উম্মাতে মোহাম্মদির জন্য আরেকটি গুরুত্বপূর্ণ বিষয়। অন্য কোনো নবীর উম্মাতের ভাগ্যে এমন সুযোগ জোটেনি।

লেখক- আহমাদুল কবির, সৌজন্যে- জাগো নিউজ