cosmetics-ad

ধাওয়ানের সেঞ্চুরিতে অস্ট্রেলিয়াকে ৩৫৩ রানের টার্গেট দিলো ভারত

dhawan

আসরের দুই ফেবারিট দলের জমজমাট এক লড়াই। লন্ডনের কেনিংটন ওভালের মাঠে ছড়িয়ে গেছে ভারত-অস্ট্রেলিয়া ম্যাচের উত্তেজনা। তবে এখন পর্যন্ত এই ম্যাচে একপেশে খেলাই দেখা যাচ্ছে। কেন না ভারতীয় ব্যাটসম্যানদের বিরুদ্ধে কোন প্রতিরোধই গড়তে পারেনি অস্ট্রেলিয়ার বোলাররা। জয়ের জন্য অজি ব্যাটসম্যানদের সামনে ৩৫৩ রানের টার্গেট ছুঁড়ে দিয়েছে বিরাট কোহলির দল।

টস জিতে প্রথমেই ব্যাটিং করার সিদ্ধান্ত নেন ভারতের অধিনায়ক বিরাট কোহলি। অধিনায়কের এই সিদ্ধান্ত ভুল প্রমাণ করেননি ভারতের দুই ওপেনার শিখর ধাওয়ান ও রোহিত শর্মা। দলকে এক উড়ন্ত সূচনা এনে এই দুই ব্যাটসম্যান।

শুরু থেকে অসি বোলারদের বিরুদ্ধে ঝড়ো গতিতে রান তুলতে থাকেন ধাওয়ান। অপরদিকে একপাশ আগলে রেখে কিছুটা ধীরে সুস্থে খেলতে থাকেন রোহিত। মিচেল স্টার্ক, প্যাট কামিন্সদের দিশেহারা করে ১৯ ওভারেই শতরানের জুটি গড়েন এই দুই ব্যাটসম্যান। এর মাঝে ধাওয়ান ৫৩ বলে তুলে নেন ক্যারিয়ারের ২৭তম অর্ধশতক।

শতরানের জুটি হওয়ার পরের দুই ওভার পরই ৬১ বলে নিজের ব্যক্তিগত ৪৭তম অর্ধশতক তুলে নেন রোহিত। তবে ফিফটি করার পর ইনিংসটা বড় করতে পারেননি আগের ম্যাচের এ সেঞ্চুরিয়ান।

ইনিংসের ২৩ তম ওভারে নাথান কল্টার নাইলের বল রোহিতের ব্যাটের কানায় লাগলে ক্যাচ ধরতে ভুল করেননি অজি উইকেটকিপার অ্যালেক্স ক্যারে। ৭০ বলে ৩ চার ও এক ছয়ে ৫৭ রান করে আউট হন এই ব্যাটসম্যান।

রোহিতে যেখানে শেষ করেছিলেন সেখান থেকেই যেন শুরু করলেন অধিনায়ক বিরাট কোহলি। দুর্দান্ত খেলতে থাকা ধাওয়ানকে যোগ্য সঙ্গ দেন তিনি। দুজন মিলে মাত্র ৩১ ওভারেই দলের সংগ্রহ দুইশতে নিয়ে যান।

প্রথম উইকেটের মতো এ উইকেটেও বড় সংগ্রহের দিকে এগুতে থাকে এ জুটি। এর মাঝেই ৯৬ বলে দারুণ এক সেঞ্চুরি তুলে নেন ধাওয়ান। তবে কোহলির সাথে ৯৩ রানের জুটি গড়ার পর বিদায় নেন এই বাঁহাতি ব্যাটসম্যান। স্টার্কের বল লেগ সাইডে খেলতে গিয়ে নাথান লায়নের ক্যাঁচে পরিণত হন তিনি। ১০৯ বলে ১৬ টি চার মেরে ১১৭ রানে আউট হন ধাওয়ান।

৩৯ ওভারে ২৩৬ রানের মাথায় দ্বিতীয় উইকেট হারানোর পর হার্দিক পান্ডিয়াকে নামিয়ে দেয় ভারত। যাতে করে তিনি দ্রুত গতিতে রান তুলতে পারেন। নামার সাথে সাথে সেই কাজটা করেও দেখিয়েছেন তিনি। তার ঝড়ো ব্যাটিংয়ের পাশাপাশি অপর প্রান্তে ৫৩ বলে ফিফটি তুলে নেন কোহলি। এটি তার ক্যারিয়ারের ৫০তম অর্ধশতক।

দুজনের ৮১ রানের জুটিতে ৪৬ ওভারেই ৩০০ পার করে ফেলে ভারত। তার পরের বলেই কামিন্সের বলে ফিঞ্চের হাতে ক্যাচ দেন পান্ডিয়া। ২৭ বলে ৪ চার ও ৩ ছয়ে ৪৮ রানের ঝড়ো এক ইনিংস খেলেন এই ডানহাতি ব্যাটসম্যান।

এরপর ইনিংস শেষ করার দায়িত্ব নেন অন্যতম সেরা ফিনিশার মহেন্দ্র সিং ধোনি। কিন্তু ১৪ বলে ৩ চার ও ১ ছয়ে ২৭ রানের ঝড়ো ইনিংস খেলার পর ইনিংসের শেষ ওভারে আউট হন তিনি। শেষ পর্যন্ত কোহলির ৭৭ বলে ৪ চার ও ২ ছয়ে ৮২ রানের কল্যাণে শেষ পর্যন্ত ৫ উইকেট হারিয়ে ৩৫২ রান করে ভারত। অস্ট্রেলিয়ার পক্ষে সর্বোচ্চ দুটি উইকেট নেন মার্কাস স্টয়নিস, একটি করে উইকেট নেন কামিন্স, স্টার্ক ও কল্টার নাইল।