sentbe-top

দীর্ঘ দাম্পত্য জীবনেও নিজস্ব বাড়ি হচ্ছে না অধিকাংশ কোরিয়ানের

বিবাহিত জীবনের এক দশক পেরিয়েও নিজস্ব একটি বাড়ি কেনার সামর্থ্য হচ্ছে না অর্ধেকেরও বেশী কোরিয়ান দম্পতির। স্ট্যাটিস্টিকস কোরিয়ার সাম্প্রতিক এক সমীক্ষার ফল বলছে, বৈবাহিক সম্পর্ক দশ বছর পূর্ণ হয়েছে এমন যুগলদের মাত্র ৪৮.৩ শতাংশ নিজস্ব বাড়িতে বাস করেন।

korean couple living in own home
জীবনের গোধূলিবেলায় একান্তই নিজেদের একটা বাড়ির সাধ কার না থাকে? ক’জনেরই আর সেটা পূরণ হয়?

এক বছরেরও কম সময় আগে বিয়ে করেছেন এমন কোরিয়ানদের মধ্যে ক্রয় করা বাড়ি রয়েছে ২৬.১ শতাংশের। ৩০ বছর এক ছাদের নীচে কাটিয়েও নিজেদের একটা বাড়ি কেনা হয়ে ওঠে নি ৩৩.৩ শতাংশ দম্পতির।

জরিপে আরও জানা যায়, নববিবাহিত কোরিয়ানদের ৫০ শতাংশ ভাড়া বাড়িতে (স্থানীয়ভাবে জিওনসে নামে পরিচিত) থাকেন। ১০ ও ৩০ বছর বয়সী পরিবারগুলোর মধ্যে এই হার যথাক্রমে ২৯.৩ শতাংশ ও ১৪.৮ শতাংশ।

রাজধানী সিউলের ব্যয়বহুল জীবনে নিজস্ব বাড়ির স্বপ্নপূরণ না হওয়াদের দলটা অন্যান্য অঞ্চলের তুলনায় একটু বেশীই। এখানকার দম্পতিদের মধ্যে বৈবাহিক জীবনের দশ বছর পূর্ণ হওয়ার আগেই বাড়ি কিনতে পেরেছেন ২৯.২ শতাংশ। সিউলে ভাড়া বাড়ির বাসিন্দা ৫২.৮ শতাংশ দম্পতি।

বিবাহিত কোরিয়ানদের মধ্যে সবচেয়ে বেশী বাড়ির ‘মালিক’ রয়েছে খোয়াংজুতে। আয়তনের দিক থেকে কোরিয়ার ষষ্ঠ বৃহত্তম শহরটিতে প্রতি একশ’ দম্পতির মধ্যে নিজস্ব বাড়ি রয়েছে ৫২.৩টির। দ্বিতীয় স্থানে থাকা উলসানে এ হার ৫১.৩।

একই সমীক্ষার প্রতিবেদনে জানানো হয়েছে কাজ কিংবা বিবাহ বিচ্ছেদের কারনে আলাদা থাকতে হচ্ছে এমন কোরিয়ান দম্পতির সংখ্যাও বাড়ছে। ১৯৯৫ সালে যা ছিল ৭.৪ শতাংশ তা ২০১০ সাল পর্যন্ত বেড়ে দাঁড়িয়েছে ৯.২ শতাংশে।

sentbe-top