sentbe-top

গাড়িতে রক্তের দাগ লাগবে বলে আহত ২ তরুণকে হাসপাতালে নেয়নি পুলিশ

india-news‘গাড়িতে রক্তের দাগ লাগবে’ বলে দুর্ঘটনায় আহত হয়ে রাস্তায় পড়ে থাকা দুই তরুণকে উদ্ধার করেনি পুলিশ। ফলে ঘটনাস্থলেই তাদের মৃত্যু হয়েছে। প্রত্যক্ষদর্শীদের অভিযোগ, দুই তরুণ রাস্তায় নিস্তেজ হয়ে পড়েছিল। রক্তে ভেসে যাচ্ছিল তাদের শরীর। পাশেই পড়েছিল তাদের মোটরসাইকেলটি।

এ অবস্থা থেকে ঘটনাস্থলে জড়ো হওয়া লোকজন দুই তরুণকে উদ্ধার করে হাসপাতালে নেয়ার চেষ্টা করেন। এ জন্য তারা রাস্তায় গাড়ি থামানোর জন্য মিনতি করেন। কিন্তু কোনো গাড়িই আহত তরুণদের হাসপাতালে নিতে রাজি হয়নি। এর পর পুলিশকে ফোন করলে ঘটনাস্থলে একটি টহল গাড়ি আসে। তখন আহত তরুণদের পুলিশের গাড়িতে তুলে হাসপাতালে নেয়ার চেষ্টা করে উপস্থিত লোকজন।

কিন্তু পুলিশ জানিয়ে দেয়, আহত তরুণদের গাড়িতে তোলা যাবে না। কারণ এতে গাড়িতে রক্তের দাগ লেগে যাবে। রাতে টহল দিতে অসুবিধা হবে। তখন পুলিশকে অনুরোধ করে বলা হয়, আহত তরুণদের হাসপাতালে পৌঁছানোর পর গাড়ি ধুয়ে নেয়া যাবে। কিন্তু এ অনুরোধেও সাড়া দেয়নি পুলিশ। এর মধ্যে ঘটনাস্থলেই দুই তরুণ মৃত্যুর কোলে ঢলে পড়েন।

ভারতের উত্তরপ্রদেশের সাহারানপুরের এই অমানবিক নিষ্ঠুরতার ঘটনাটি ভিডিও করে রেখেছেন সেখানে থাকা একজন। ভিডিওটি ইন্টারনেটে ভাইরাল হয়ে যাওয়ার পর পুলিশের বিরুদ্ধে তীব্র ক্ষোভ তৈরি হয়েছে।

ঘটনা প্রসঙ্গে সাহারানপুর সিটি পুলিশের প্রধান প্রবাল প্রতাপ সিং বলেন, আমাদের তিন সদস্যের বিরুদ্ধে আহতদের হাসপাতালে না নিয়ে যাওয়ার অভিযোগ উঠেছে। সেই ভিডিও ভাইরাল হয়েছে। প্রাথমিকভাবে মনে করা হচ্ছে, অভিযোগ সত্যি।

উত্তরপ্রদেশ পুলিশের দায়িত্বপ্রাপ্ত ডিজি আনন্দ কুমার জানান, অভিযুক্তদের বিরুদ্ধে দৃষ্টান্তমূলক ব্যবস্থা নেয়া হবে। এমন উদাসীনতা, অমানবিক আচরণ কোনোভাবেই বরদাশত করা হবে না। তিনি আরও জানান, অভিযুক্ত পুলিশকর্মীদের সাসপেন্ড করা হয়েছে। বিষয়টি নিয়ে তদন্ত শুরু হয়েছে।

sentbe-top