sentbe-top

প্রবাসীদের জন্য সবচেয়ে নিরাপদ ১০ দেশ

probashটাকা উপার্জন করতে বা স্থায়ীভাবে বসবাসের ক্ষেত্রে প্রবাসে পাড়ি জমান অনেকে। এসময় ব্যক্তিগত নিরাপত্তা ও সুরক্ষার বিষয়টিই অন্যতম গুরুত্বপূর্ণ হয়ে ওঠে। বিশেষ করে ওই দেশে জীবনযাত্রার সঙ্গে নিজেকে মানিয়ে নেয়া ও কাজের পরিবেশ দুই বিষয়ই গুরুত্বের জায়গা তৈরি করে।

প্রবাসীদের সবচেয়ে বড় নেটওয়ার্ক ইন্টারন্যাশনস নামক প্রতিষ্ঠান সম্প্রতি ব্যক্তিগত নিরাপত্তা ও সুরক্ষার বিষয়ে গবেষণা জরিপ করে শীর্ষ ১০ দেশের তালিকা প্রকাশ করেছে। ১৮৮ অঞ্চলে কর্মরত ১৩ হাজার প্রবাসীর জীবনাচরণ ও তাদের কর্ম পরিবেশের ওপর গবেষণা চালিয়ে এ তথ্য দিয়েছে প্রতিষ্ঠানটি।

জরিপ অনুসারে, প্রবাসীদের জন্য নিরাপদ শহর ইউরোপ, এশিয়া ও মধ্যপ্রাচ্যের দেশ রয়েছে। তবে গুরুত্বপূর্ণ বিষয় হচ্ছে, যুক্তরাষ্ট্র ও যুক্তরাজ্য নেই এই ১০ দেশের তালিকায়।

১০) মাল্টা: মাত্র ৪ লাখ মানুষের বাস মাল্টায়। ব্রিটিশ প্রবাসীদের কাছে দেশটি অনেক জনপ্রিয়। কারণ এখানে বাস করার অনুমতি পাওয়া যায় সহজে। এছাড়া মনোরম পরিবেশ এবং ব্যক্তিগত নিরাপত্তা ও সুরক্ষা অনেক ভালো।এছাড়া প্রবাসীরা তাদের আয় দিয়ে সহজেই প্রয়োজনীয় চাহিদা মেটাতে পারে।

৯) ওমান: মধ্যপ্রাচ্যের দেশ ওমানে জীবনযাত্রার ব্যয় অনেক কম। দেশটি প্রবাসীদের আকর্ষণের কেন্দ্রে রয়েছে।

৮) নেদারল্যান্ডস: প্রবাসীদের জন্য বিশ্বের অন্যতম শান্তিপূর্ণ দেশ হচ্ছে নেদারল্যান্ডস। অধিকাংশ প্রবাসী জানিয়েছেন, দেশটির অর্থনৈতিক উত্থান ও শ্রম পরিবেশ নিয়ে তারা খুশি।

৭) কোস্টারিকা: এখানে জীবনযাপন একটু ব্যয়বহুল হলেও দেশটি প্রবাসীদের অন্যতম আকর্ষণের জায়গা।

৬) সুইডেন: ক্যারিয়ার নিয়ে সম্ভাবনা, চাকরির নিরাপত্তা এবং অন্যান্য সুবিধার জন্য দেশটি প্রবাসীদের পছন্দের।

৫) নিউজিল্যান্ড: কাজের পরিবেশের চেয়ে উন্নততর জীবনযাপনকে এখানে গুরুত্ব দিয়ে থাকেন অধিকাংশ মানুষ। একজন ব্রিটিশ প্রবাসী বলছেন, নিউজিল্যান্ডের প্রবাসীদের জন্য সবচেয়ে বড় পাওয়া বন্ধুত্বপূর্ণ লাইফস্টাইল।

৪) চেক প্রজাতন্ত্র: ইন্টারন্যাশনসের তালিকায় সবচেয়ে বেশি কর্মঘণ্টা চেক প্রজাতন্ত্রে। সপ্তাহে প্রায় ৪৫ ঘণ্টা কাজ করেন এখানকার মানুষ। তারপরও দেশটির জীবনমান উপভোগ করেন প্রবাসীরা।

৩) নরওয়ে: সম্পর্কের খাতিরে অথবা পরিবার নিয়ে আসা প্রবাসীদের কাছে দেশটির নিরাপত্তা অনেক গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রেখেছে। তবে কেউ কেউ আবার বলেছেন, এখানে জীবন নির্বাহ আয়ের তুলনায় ব্যয়বহুল।

২) বাহরাইন: চাকরি ও জীবন নির্বাহ দুই দিক থেকেই প্রবাসীদের পছন্দের জায়গা বাহরাইন। ফিলিপাইনের একজন বলছেন, বাহরাইনে কাজের পর প্রবাসীরা অন্তত একটু বিশ্রাম নিতে পারেন।

১) ডেনমার্ক: প্রবাসীদের জন্য যেসব দেশ নিরাপদ বলে আখ্যা দিয়েছে ইন্টারন্যাশনস, তার মধ্যে ডেনমার্কে কর্মঘণ্টা সবচেয়ে কম। দেশটির মানুষ সপ্তাহে গড়ে ৩৯ ঘণ্টা কাজ করে থাকেন। ইন্দোনেশিয়া-ফিলিপাইন থেকে যাওয়া প্রবাসীরা দেশটিতে কাজের পরিবেশ নিয়ে প্রশংসা করেছেন।

সৌজন্যে- আরটিভি অনলাইন

sentbe-top