sentbe-top

খরচ কমাতে হেলিকপ্টারে অফিসে যাচ্ছেন ইমরান খান!

imranক্ষমতায় এসে সরকারের খরচ কমানোর ঘোষণা দিয়েছিলেন পাকিস্তানের বর্তমান প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান। কিন্তু, এখন দেখা যাচ্ছে তিনি বাসা থেকে অফিস যাচ্ছেন হেলিকপ্টারে। এ নিয়ে তীব্র সমালোচনার মুখে পড়েছেন দেশটির সাবেক ক্রিকেটতারকা।

জিও টিভির বরাত দিয়ে ফাস্টপোস্ট জানায়, ইমরানের পক্ষ নেওয়ায় দেশটির তথ্যমন্ত্রী ফাওয়াদ চৌধুরীর দিকেও ছুটছে সমালোচনার তীর। সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম টুইটারে তাকে তুলোধুনো করছেন বিভিন্ন জনেরা।

স্থানীয় এক গণমাধ্যমকে ফাওয়াদ বলেন, তিনি গুগল ক্যালকুলেটর ব্যবহার করে দেখেছেন “ইমরানের হেলিকপ্টার ব্যবহার করাটিই বেশ সাশ্রয়ী। কেননা, এতে কিলোমিটার প্রতি ৫০ থেকে ৫৫ রুপি খরচ হয়।” তিনি হেলিকপ্টার ব্যবহার করাকে “ভিআইপি কালচার” বলতেও নারাজ।

ব্রিটিশ গণমাধ্যম বিবিসি’র মতে, মন্ত্রী ফাওয়াদ যে হিসাব দিয়েছেন তা ঠিক নয়। প্রধানমন্ত্রীর অগুস্তা ওয়েস্টল্যান্ড এডব্লু১৩৯ এর কিলোমিটার প্রতি খরচ হয় ১ হাজার ৬০০ পাকিস্তানি রুপি।

sentbe-adফাওয়াদ ছাড়াও ইমরানের পাকিস্তান তেহরিক-ই-ইনসাফ (পিটিআই) দলের সংসদ সদস্য আলি মুহাম্মদ খান এগিয়ে আসেন প্রধানমন্ত্রীকে এই সমালোচনা থেকে ‘রক্ষা’ করতে। তিনি ইমরানের হেলিকপ্টার ব্যবহারের নানাবিধ উপকারিতা তুলে ধরেন। তার মতে, প্রধানমন্ত্রীর গাড়ি বহরে পাঁচ থেকে সাতটি গাড়ি থাকে। সেই হিসাবে একটি হেলিকপ্টারে তিন মিনিটের সফর সাশ্রয়ই বটে!

এর আগে দেশটির প্রভাবশালী ডন পত্রিকা জানায়, পাকিস্তানের পাঞ্জাব প্রদেশের মুখ্যমন্ত্রী উসমান বুঝদারের সপরিবারে ব্যক্তিগত উড়োজাহাজে ভ্রমণের ছবি সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে প্রকাশিত হওয়ার পর ক্ষমতাসীন দল বেশ সমালোচনার মুখে পড়েছে।

খরচ কমানোর পদক্ষেপ হিসেবে সরকারের শীর্ষ কর্তাব্যক্তিদের প্রথম শ্রেণিতে আকাশ ভ্রমণের ওপর নিষেধাজ্ঞা দেওয়া হয়েছে। এমনকি, দেশটির রাষ্ট্রপতিও এই নিষেধাজ্ঞার মধ্যে পড়েছেন। এমন পরিস্থিতিতে প্রধানমন্ত্রী ইমরান খানের হেলিকপ্টারে চড়ে অফিস যাওয়ার ঘটনাটি বিদেশি সংবাদমাধ্যমগুলোতেও বেশ আলোচিত হচ্ছে।

sentbe-top