ওমানে চাকরি ছেড়ে হোটেল ব্যবসা, চমক দেখালেন বাংলাদেশি

omanবসা-বাণিজ্যের অপার সম্ভাবনাময় দেশ ওমান, ইতোমধ্যেই বাংলাদেশি ব্যবসায়ীরা বেশ সফলতার ভূমিকা রেখেছেন। দেশটিতে সাত লাখেরও অধিক বাংলাদেশির বসবাস। ব্যবসা যুক্ত আছেন এমন লোকের সংখ্যা খুবই কম। বেশিরভাগই কন্সট্রাকশন ও কৃষি কাজে নিয়োজিত।

হাফেজ ইসমাঈল হোসেন, ভাগ্য বদলের আসায় ওমান আসেন ৪ বছর আগে, অন্যদের থেকে একটু ভিন্নভাবেই তার শুরু।, মাস্কাট কলেজের একজন কেয়ারটেকার হিসেবেই ওমানে যাত্রা। ৬ মাস চাকরি করার পর ছোটখাটো কন্সট্রাকশন কাজের কন্ট্রাক্ট নিতেন। এভাবেই ধীরে ধীরে এগুতে শুরু করেন। তিনি মনে করেন চাকরিতে হতাশা সৃষ্টি হয় এ কারণেই হোটেল ব্যবসায় নেমে পড়েন। এ ব্যবসায় তিনি চমক দেখিয়েছেন।

আলাপে জানা গেছে, মাত্র ৪ বছরেই তিনি প্রতিষ্ঠা করেন একটি হোটেল। বর্তমানে তার হোটেলে বেশকিছু বাংলাদেশি কাজ করছেন। তিনি আশা করেন চেষ্টা থাকলে সফলতা নিশ্চিত।

এরপর বিভিন্ন ব্যবসা প্রতিষ্ঠান, কিছুদিন আগে তার নতুন একটি রেস্টুরেন্ট উদ্বোধন হয়। উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে কমিউনিটির সিনিয়র নেতাকর্মীদের উপস্থিত ছিল লক্ষণীয়। স্থানীয় ওমানিরাও উপস্থিত ছিলেন। বাংলাদেশিদের এমন সফলতা দেখে মুগ্ধ ওমানিরা।

বাংলাদেশি কমিউনিটি নেতাদের ভেতর বক্তব্য রাখেন- বাংলাদেশ সোস্যাল ক্লাবের সাবেক প্রেসিডেন্ট শফিকুল ইসলাম ভূঁইয়া, ক্লাবের সেক্রেটারি এমএন আমিন, ক্লাবের প্রেসিডেন্ট সিরাজুল হক ও আজিমুল হক বাবুল। এছাড়াও কমিউনিটির অনেক সিনিয়র নেতারা বক্তব্য রাখেন। বক্তারা তাদের আলোচনায় সবাইকে ওমানের আইন-কানুন মেনে চলার অনুরোধ করেন।