মালয়েশিয়ায় গ্রেফতার আতঙ্কে নির্ঘুম রাত কাটছে বাংলাদেশিদের

malaysia-bangladeshi
ফাইল ছবি

মালয়েশিয়ায় ব্যাপক ঝড়-বৃষ্টি উপেক্ষা আর ভয়কে জয় করে জঙ্গলে জীবন-যাপন করছে অবৈধরা। দেশটিতে অভিবাসন বিভাগের ধরপাকড় থেকে বাঁচতে এদিক-ওদিক অবিরাম ছুটে চলছে প্রবাসী বাংলাদেশিরা।

একদিকে অভিবাসন বিভাগের চিরুনি অভিযান অন্যদিকে বৈধ হওয়ার আশ্বাসে সহায় সম্বল হারিয়েছে লাখ লাখ বাংলাদেশি। রেজিস্ট্রেশন করেও অনেকেই অবৈধ গ্লানি মাথায় নিয়ে জীবিকা নির্বাহ করছে।

আতঙ্কিত বাংলাদেশির দিনে কাজে গেলেও রাতের বেলায় ঠিকমত ঘুমাতে পারছে না। ভয় একটায় কখন বুঝি পুলিশি অভিযান শুরু হয়! সম্প্রতি প্রবাসী মন্ত্রী মালয়েশিয়ায় সফরে অবৈধদের বৈধ হওয়ার সুযোগ এবং যারা প্রতারণার শিকার হয়েছে তাদের জন্য মালয়েশিয়ার সরকারের সঙ্গে আলাপ করেছেন বলে সাংবাদিকদের জানানো হয়।

কিন্তু মালয়েশিয়ার পক্ষ থেকে এম কুলাসেগারান স্থানীয় সাংবাদিকদের জানান, বাংলাদেশের সঙ্গে আমাদের ১০ এজেন্সির চুক্তি বাতিল করে সব বৈধ এজেন্সিকে দেশটিতে শ্রমিক পাঠানোর অনুমোদন দেয়া হয়।

একাধিক প্রবাসী এই প্রতিবেদককে জানান, আমরা সবাই প্রবাসী মন্ত্রীর আগমনকে ইতিবাচকভাবে নিয়েছিলাম এবং ভেবেছিলাম অবৈধ এবং প্রতারণার শিকার অভিবাসীদের পক্ষে জোর প্রচারণা এবং কূটনৈতিক প্রচেষ্টার মাধ্যমে আমাদের বৈধ হওয়ার সুযোগ করে দেবেন। কিন্তু প্রতিদিন মালয়েশিয়ায় অভিযানে আটক হচ্ছে কোন না কোন বাংলাদেশি। ইদানিংকালে আটকের মাত্রা বেড়েছে। অব্যাহত এ অভিযানের ফলে অনেকেই রাতের আধারে জঙ্গলে লুকিয়ে রয়েছেন বলে জানা গেছে।

উল্লেখ্য, জি-টু-জি-প্লাস পদ্ধতিতে ১০টি এজেন্সির বদলে সব বৈধ রিক্রুটিং এজেন্সির মাধ্যমে বাংলাদেশি কর্মীদের মালয়েশিয়ায় পাঠানো হবে। প্রবাসী কল্যাণ ও বৈদেশিক কর্মসংস্থানমন্ত্রী নুরুল ইসলামের নেতৃত্বে মালয়েশিয়া সফররত বাংলাদেশি প্রতিনিধি দলের সঙ্গে দেশটির সরকারি কর্মকর্তাদের জয়েন্ট ওয়ার্কিং গ্রুপের দু’দফা বৈঠকের পর এ সিদ্ধান্ত নেয়া হয়।