cosmetics-ad

মসজিদ নির্মাণের অর্থ থেকে ৬০ লাখ টাকা চাঁদা দাবি

model-mosjid
মডেল মসজিদ

কুষ্টিয়ার দৌলতপুর উপজেলায় মডেল মসজিদ নির্মাণের অর্থ থেকে ৬০ লাখ চাঁদা দাবি করেছে সন্ত্রাসীরা। চাঁদার টাকা দিতে অস্বীকৃতি জানালে ঠিকাদারকে গুলি করে হত্যার হুমকি দেওয়া হয়েছে। এ ঘটনায় আজ শনিবার সকালে দৌলতপুর থানায় একটি জিডি করা হয়েছে।

ঠিকাদারের অভিযোগ ও জিডিতে উল্লেখিত বিষয় সূত্রে জানা গেছে, গণপূর্ত বিভাগ হতে টেন্ডারের মাধ্যমে ১২ কোটি ৩৮ লাখ টাকায় দৌলতপুর উপজেলা মডেল মসজিদ নির্মাণ কাজ পায় ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠান গ্যালাক্সি এসোসিয়েটস্ প্রাইভেট লিমিটেড। শুক্রবার রাত ৯টার দিকে বাবু নামে এক সন্ত্রাসী মোবাইল ফোনে ঠিকাদার ও দৌলতপুর কলেজের অধ্যক্ষ ছাদিকুজ্জামান খান সুমনের কাছে ৬০ লাখ টাকা চাঁদা দাবি করেন।

ঠিকাদার ছাদিকুজ্জামান খান সুমন চাঁদা দিতে অস্বীকৃতি জানালে বাবু তাকে গুলি করে হত্যার হুমকি দেয়। বাবু আন্ডার ওয়াল্ডের শীর্ষ সন্ত্রাসী বাহিনীর সদস্য বলে দাবি করেন।

ছাদিকুজ্জামান খান সুমন বলেন, ‘‘মসজিদ নির্মাণ বরাদ্দের শতকরা ৫ ভাগ অর্থাৎ ৬০ লাখ টাকা চাঁদা দাবি করে। চাঁদার টাকা দিতে অস্বীকৃতি জানালে আমাকে গুলি করে হত্যার হুমকি দিয়েছে।’’

দৌলতপুর থানার ওসি নজরুল ইসলাম বলেন, এ বিষয়ে যথাযথ আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে। যত বড় মাপের সন্ত্রাসী হোক, তার ছাড় নেই।