cosmetics-ad

ইউরোপে থেকে যেভাবে পাবেন যুক্তরাজ্যের ভিসা

uk

ইউরোপে যারা স্টুডেন্টস, বিজনেস, জব ভিসায় কিংবা স্কিল্ড ওয়ার্ক পারমিট নিয়ে আছেন তারা সহজেই যুক্তরাজ্যে ট্যুরিস্ট ভিসার আবেদন করতে পারবেন। আয়ারল্যান্ড ইউরোপিয়ান ইউনিয়নভুক্ত দেশ হওয়া সত্ত্বেও থার্ড কান্ট্রির নাগরিকদের জন্য ফ্রি মুভমেন্ট চুক্তির বাহিরে রাখা হয়েছে অর্থাৎ যারা ইউরোপের পাসপোর্ট পাননি তাদের ভিসা নিয়ে প্রবেশ করতে হবে।

প্রথমত : অনলাইনে ইউকের আবেদন ফর্ম পূরণ করতে হবে। আবেদন ফর্ম পূরণ করতে এখানে গিয়ে ইউজার অ্যাকাউন্ট ওপেন করতে হবে। ইউজার ওপেন করে শুরু করবেন ফর্ম পূরণের কাজ।

দ্বিতীয়ত : ফর্ম পূরণের শেষের দিকে ভিসা অ্যাপ্লিকেশন ফি পেমেন্ট কনফার্ম করতে হবে। সেটা করতে পেপাল, ভিসা, মাস্টার কার্ড, ক্রল, ওয়েব মানি যেকোনো পেমেন্ট সিস্টেমে পে করতে পারবেন। ইউকের ভিসা অ্যাপ্লিকেশন ফি ১৯৩ ইউরো ইউথ সার্ভিস চার্জ।

তৃতীয়ত : পেমেন্টের কাজ শেষ হলে ভিসা অ্যাপ্লিকেশন সেন্টার বা অ্যাম্বাসির কন্সুলার সেকশনে অ্যাপ্লিকেশন জমা দেয়ার দিন নিতে হবে। অ্যাপয়েন্টমেন্ট নেয়ার কাজ শেষ হলে পুরো অ্যাপ্লিকেশন ফর্ম ও ভিসা অ্যাপ্লিকেশন ফি কনফার্মেশন প্রিন্টআউট করতে হবে। চাইলে যেকোনো সময় অনলাইন থেকে অ্যাপ্লিকেশন ও পেমেন্টের কপি ডাউনলোড করতে পারবেন। অ্যাপ্লিকেশন ফর্ম পূরণের পর নিচের স্ট্যাটাস শো করবে আপনার ফাইলে।

চতুর্থত : উপরের কাজগুলো শেষ করে ফাইনালি কি কি ডকুমেন্টস সাথে জমা দিতে হবে তার লিস্ট তৈরি করতে হবে। সাথে কি কি ডকুমেন্টস লাগবে তার তালিকা পাবেন এখান থেকে

যেসব ডকুমেন্টস জমা দিতে হবে ভিসা অ্যাপ্লিকেশনের সাথে-

* পূরণ করা আবেদন ফর্ম (ইউথ ফটো অ্যান্ড ডোন্ট ফরগেট টু সাইন)

* পেমেন্ট কনফার্মেশন লেটার (প্রিন্ট ফর্ম ই-মেইল)

* অ্যাপয়েন্টমেন্ট কনফার্মেশন প্রিন্ট আউট

* পাসপোর্ট মিনিমাম ১ বছরের ভ্যালিড

* পাসপোর্ট সাইজ ফটো ৩৫/৪৫

* ব্যাংক স্টেটমেন্ট (ব্যাংক স্টেটমেন্ট হলে মিনিমান ৬ মাসের স্টেটমেন্ট/ ট্রানজেকশন জমা দিতে হবে। ব্যাংক স্টেটমেন্টে অবশ্যই ব্যাংক কর্তৃপক্ষের সিল, তারিখ এবং তাদের স্বাক্ষর থাকতে হবে। ইন্টারনেট প্রিন্ট গ্রহণযোগ্য হবে না।

* ইউকে থেকে কেউ ইনভাইটেশন পাঠালে ব্যাংক স্টেটমেন্টের দরকার পড়বে না। সেক্ষেত্রে যে ইনভাইট করবে তার ব্যাংক স্টেটমেন্টের কপি ও তার পাসপোর্টের ডাটা পেজের কপি লাগবে। ইনভাইটেশন কোনো কোম্পানি হলে তাদের হেডেড পেপারে ইনভাইটেশন হতে হবে।

* বর্তমান যে দেশে আছেন সেই দেশের লিগাল স্ট্যাটাস-এর কপি (ভ্যালিড ভিসা/রেসিডেন্সের ফটোকপি)

* স্টুডেন্টস হলে ইউনিভার্সিটি থেকে হলিডে লেটার বা কারেন্ট স্টুডেন্টস তার কনর্ফামেশন লেটার। হলি ডে লেটার তার সেমিস্টার সম্পর্কে এবং কতদিন ছুটি সেটা উল্লেখ থাকতে হবে।

* জব করলে কোম্পানির হেডেড পেপারে কনফামেশন লেটার (জব সম্পর্কে বিস্তারিত যেমন সেলারি, আপনার জব পজিশন, কতদিন যাবত জব করছেন ইত্যাদি লেখা থাকতে হবে)

* জব করলে লাস্ট ৩ মাসের ব্যাংক স্টেটমেন্ট।

* কেউ নিজে বিজনেস করলে বিজনেস রেজিস্ট্রেশন পেপারস (ট্যাক্স অফিস থেকে) জমা করতে হবে। বিজনেস রেজিস্ট্রেশন পেপারে অবশ্যই নাম, কি টাইপের বিজনেস, কবে শুরু করছেন ইত্যাদি মেনশন থাকতে হবে।

* বিজনেসের ক্ষেত্রে লাস্ট ৩ মাসের ব্যালেন্স শিট (অর্থাৎ আপনার আয় বায় কত তার একটা নমুনা ছক)

উপরোক্ত ডকুমেন্টসসহ হাজির হয়ে যাবেন ইউকের ভিসা অ্যাপ্লিকেশন সেন্টারে। অ্যাপয়েন্টমেন্ট কনফার্মেশন লেটারে স্থান ও তারিখ লেখা থাকবে। মিনিমাম ১৫ মিনিট আগে ইন্টারভিউ এবং বায়োমেট্রিক-এর জন্য হাজির হবেন। ভিসা অ্যাপ্লিকেশন সেন্টারে আবেদন জমা দেয়ার পর আপনাকে ফরমাল কিছু প্রশ্ন করা হবে। বায়োমেট্রিক (ডিজিটাল ফেসিয়াল ইমেজ ও ফিঙ্গার প্রিন্ট) নেয়া হবে। আপনি চাইলে সকল প্রকার ডকুমেন্টস অরজিনাল জমা দিতে পারেন। তারা আপনাকে ভিসা অ্যাপ্লিকেশন ফর্ম আর আপনার রেসিডেন্সের কপি বাদে সকল প্রকার ডকুমেন্টস ফেরত দিবে বাই পোস্টে।

* ভিসা আবেদনের দিন থেকে ১৫ ওয়ার্কিং ডে সময় নেবে নরমালি ভিসার সিদ্ধান্ত নিতে। ভিসা পেলে বা রিজেক্ট হলে পোস্টের মাধ্যমে আপনার পাসপোর্ট বাসার ঠিকানায় পাঠিয়ে দেয়া হবে।

যুবরাজ শাহাদাত, ফ্লোরিডা থেকে