cosmetics-ad

ভাঙা স্বপ্ন নিয়ে দেশে ফিরলেন কুয়েত প্রবাসী কবির

kobir-hossain

পরিবারে সচ্ছলতা আনা এবং উন্নত জীবনযাপনের স্বপ্ন নিয়ে ১৬ বছর আগে কুয়েতে গিয়েছিলেন ফরিদপুর জেলার কোতোয়ালি থানার বাসিন্দা শেখ কবির হোসেন। তার সেই স্বপ্ন আজ ভেঙে গেছে। একটি দুর্ঘটনায় ভেঙেছে তার দুটি পা। যে দুর্ঘটনা তার স্বপ্নকেও ভেঙে দিয়েছে। অবশেষে ভাঙা স্বপ্ন নিয়ে দেশে ফিরে এসেছেন তিনি। বুধবার রাতে বাংলাদেশ বিমানের একটি ফ্লাইটে তিনি দেশে ফেরেন।

খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, এই রেমিট্যান্স যোদ্ধা এক যুগেরও বেশি সময় ধরে ‘কুয়েত কেয়ার সার্ভিস’ নামে একটি ক্লিনিং কোম্পানিতে কর্মরত ছিলেন। চার মাস আগে কর্মস্থলে কাজ করতে গিয়ে দুর্ঘনায় দুটি পা ভেঙে যায় তার। তখন থেকে স্থানীয় একটি হাসপাতালে চিকিৎসাধীন থাকার পর কোম্পানি তার কোনো খোঁজ-খবর নেয়নি।

বিভিন্ন জনের সহযোগিতায় অনেক কষ্টে চার মাসের চিকিৎসা ও থাকা-খাওয়ার খরচ বহন করলেও পায়ের কোনো উন্নতি হয়নি। কাজ করতে না পারায় অসহায় মানবেতর জীবনযাপন শুরু হয় তার। কুয়েতের হাসাবিয়ায় থাকা কবির অর্থের অভাবে দেশেও পরিবার-পরিজনের কাছে আসতে পারছিলেন না।

তার অসহায় জীবনযাপনের কথা শুনে এগিয়ে আসেন মানবপ্রেমী কয়েকজন তরুণ সমাজকর্মী। তারা হলেন জাহিদুল হক, হোসেন মুরাদ চৌধুরী, ফোয়াদ আহমেদ, জাহেদ আহমেদ চৌধুরী, বিএনপি নেতা শেখ শামীম। তারা কবিরকে বাংলাদেশ বিমানের টিকিট করে দেন এবং নগদ কিছু অর্থ সহায়তা করেন।

শেখ কবির হোসেন দেশে ফেরার আগে অশ্রুসিক্ত চোখে সবার সহযোগিতায় কৃজ্ঞতা প্রকাশ করে বলেন, ‘আপনাদের সহযোগিতার কথা আমি কখনও ভুলব না। প্রবাসে আল্লাহ যেন সবাইকে সুস্থ রাখেন, ভালো রাখেন।’