অজগরের পেট কেটে নারীর মরদেহ উদ্ধার

Snake-in-womenইন্দোনেশিয়ার সুলাওয়েসি প্রদেশের মুনা দ্বীপে অজগরের পেট থেকে ওয়া থিবা (৫৪) নামে এক নারীর মরদেহ উদ্ধার করা হয়েছে। স্থানীয় সময় শুক্রবার এই ঘটনা ঘটে।

বিবিসির এক প্রতিবেদনে জানানো হয়েছে, বৃহস্পতিবার সকালে বাড়ির কাছের সবজি ক্ষেতে গিয়ে নিখোঁজ হন ওই নারী। এর কয়েক ঘণ্টা পরই গ্রামের মানুষজন তাকে খুঁজতে শুরু করেন। পরের দিন তারা ক্ষেতের কাছে জঙ্গলে ওই নারীর পায়ের স্যান্ডেল এবং হাতের ছুরিটি পড়ে থাকতে দেখেন। আর দেখা যায়, সেগুলোর ৩০ মিটার দূরে শুয়ে আছে পেট মোটা বিশাল এক ডোরাকাটা অজগর সাপ।

sentbe BT

স্থানীয় পুলিশ প্রধান বার্তা সংস্থা এএফপিকে বলেন, অজগরটিকে দেখে গ্রামবাসীর সন্দেহ হয়, সাপটিই হয়তো ওয়া থিবাকে গিলে ফেলেছে। তারা সাপটিকে মেরে জঙ্গলের বাইরে নিয়ে যান। পরে অজগরের পেট চিরে তার ভেতর ওই নারীর মরদেহ উদ্ধার করা হয়।

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ছড়িয়ে পড়া এই ঘটনাও ছবি ও ফুটেজে দেখা গেছে, অজগরের পেট চিরে পূর্ণবয়স্ক একটি নারীর অক্ষত মরদেহ বের করে আনছেন কয়েকজন।

তবে এটিই প্রথম নয়, গত বছরের মার্চেও সুলাওয়েসিতে এক ব্যক্তিকে খেয়ে ফেলে একটি অজগর। ২৫ বছরের বছর বয়সী এক যুবক বাড়ির পাশের পাম বাগানে যাওয়ার পর এমন করুণ পরিণতির সম্মুখীন হতে হয়েছিল তাকে। এছাড়াও ২০০২ সালে দক্ষিণ আফ্রিকার একটি পাহাড়ি অজগর (রক পাইথন) ১০ বছরের এক বালককে গিলে খায়।