sentbe-top

ঘুরে আসুন দক্ষিণ কোরিয়ার ‘উত্তর কোরিয়া ন্যাশনাল পার্ক’

গাছ গাছালি আর সাদা পাহাড়ে পরিপূর্ণ গিনেসবুকে স্থান করে নেওয়া বুকহান ন্যাশনাল পার্ক (북한산국립공원) পর্যটকের জন্য দিনদিন জনপ্রিয় গন্তব্য হয়ে উঠেছে। বুকহান শব্দের অর্থ উত্তর কোরিয়া। শাব্দিক অর্থে পার্কটির নাম হবে ‘উত্তর কোরিয়া ন্যাশনাল পার্ক’। সিউল থেকে মাত্র ৪০ মিনিটের দূরত্বে অবস্থিত এই বুকহান ন্যাশনাল পার্ক। পার্কটির দৈর্ঘ্য প্রায় ৮০ কিলোমিটার।

বুকহান পার্কেই রয়েছে বিশাল উচ্চতার বুকহান পাহাড়। যার সর্বোচ্চ চূড়ার নাম ব্যাগুনদে (Baegundae(백운대)। ২৭৪৪ ফুট উচ্চতার এই চূড়াটিই বুকহান পার্কের সবচেয়ে উচু আর জনপ্রিয় চূড়া। এছাড়া এই পাহাড়ে ২৬৫৯ ফুট উচ্চতার ইনসুবোং এবং আর ২৬২৩ ফুট উচ্চতার মানগিয়ংদেসহ আরো অনেক চুড়া রয়েছে। কিন্তু উপরে উল্লেখিত তিনটি চূড়া থেকে অসাধরণ সব দৃশ্য ভালভাবে দেখা যায়।

পাহাড়টির চলাচল ব্যবস্থা ভয়ানক হলেও এখানে প্রতিবছর গড়ে প্রায় ৫০ লক্ষ মানুষ হাইকিং করতে আসে। পাখির চোখ দিয়ে সম্পুর্ণ সিউল শহর দেখার আদর্শ জায়গা হচ্ছে এই পাহাড়। সূর্যোদয় আর সূর্যাস্ত খুব কাছে থেকেই দেখা যায় এই পাহাড়ের যেকোন চূড়া থেকে। এখানে অনেকগুলি প্রাচীন দূর্গ আর বৌদ্ধ মন্দির রয়েছে যেগুলোর আকর্ষণীয় নির্মাণশৈলী যে কাউকে মুগ্ধ করতে বাধ্য। আঁকাবাঁকা পথের এই পাহাড় চকচকে পাথরের তৈরি। পাহাড়টি অনেকটা সোজাসুজিভাবে লম্বাভাবে দাঁড়ানো আকৃতির। কিছু কিছু জায়গায় সিড়ি থাকলেও প্রায় পুরো পাহাড়ে পাথরের উচু পথ দিয়ে সাজানো। পাথরের আঁকাবাঁকা পথ বেয়ে উপরে উঠতে কষ্ট হবে কিন্তু সেই কষ্ট নিমিষেই শেষ হয়ে যায় যখন পর্যটকরা উপরে পৌঁছান।

যতক্ষণ সময় লাগবে

সকাল ১০টায় পার্কের প্রবেশ পথ থেকে যাত্রা শুরু করলে দিনের মধ্যে ভালভাবেই বুকহান ন্যাশনাল পার্ক থেকে ঘুরে আসা যাবে। পাহাড়ের উঁচুতে উঠতে লাগবে প্রায় ২ থেকে ৩ ঘন্টা। আর নামার জন্য লাগবে যাবে প্রায় দেড় থেকে ২ ঘন্টা। পুরোটাই নির্ভর করছে আপনার হাঁটার গতির উপর।

সাথে যা যা নিতে হবে

  • নভেম্বর থেকে ফেব্রুয়ারি মাসে অনেক শীত থাকে। তাই মোটা শীতের কাপড় নিয়ে যাওয়া উচিৎ।
  • হাইকিং সু অথবা স্লিপ কাটে না এমন কনভার্স সু পরে যাওয়াটা ভাল হবে।
  • ভাল মানের হাত মোজা নিতে হবে (বেয়ে বেয়ে ওঠার জন্য হাতে অনেক চাপ পরবে)
  • পানি আর শুকনা খাবার (পাহাড়ে ওঠার পথে ১টা খাবারের দোকান আছে)

সাবধানতা

অনেক জায়গা পিচ্ছিল (ঠান্ডা পাথর আর গাছের পাতার কারণে) তাই পা সাবধানে ফেলতে হবে। বেশি পাতাযুক্ত স্থানে একটু বেশি সাবধান থাকতে হবে।

যেভাবে যাবেন

বুকহান পাহাড়ে যাওয়ার জন্য প্রথমে খিয়ংগিদো প্রদেশের সাবওয়ের ৪ নাম্বার লাইনের সুয়ু (수유) স্টেশনের (১,২,৭,৮)যেকোন এক্সিট দিয়ে বের হয়ে ১২০ নাম্বার বাসে উঠে একেবারে শেষ স্টপেজে নামতে হবে। তারপর প্রায় ২০ মিনিট হেঁটে বুকহান ন্যাশনাল পার্কের প্রবেশপথে যেতে হবে।

sentbe-top