মালয়েশিয়ার হাসপাতালে এক বাংলাদেশির নীরব কান্না

malaysia-altafমালয়েশিয়ায় এক বাংলাদেশির আর্তনাদে হাসপাতালের ওয়ার্ড ভারী হয়ে উঠেছে। প্রায় ১০ মাস ধরে ক্লাং এর তোয়াংকো আম্পোয়ান হাসপাতালের ৭/সি ওয়ার্ডের ৩৯ নং বেডে চিকিৎসাধীন রয়েছেন আলতাফ হোসেন (৪৫) নামের এক বাংলাদেশি।

হাসপাতাল সূত্রে জানা গেছে, চলতি বছরের ২৮ ফেব্রুয়ারি রাস্তা থেকে কুড়িয়ে কয়েকজন লোক হাসপাতালে রেখে চলে যায় তাকে। হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ মানবিক বিবেচনায় হাসপাতালে ভর্তি করেন তাকে। দীর্ঘদিন চিকিৎসা দিয়ে সুস্থ করলেও আলতাফ হোসেন কথা বলতে পারেননি। শুধুমাত্র কাগজে লিখতে পারছেন তার নাম, বাংলাদেশ, কুমিল্লা।

হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ আলতাফ হোসেনের অভিভাবককে খুজেঁ না পেয়ে ৪ ডিসেম্বর বাংলাদেশ দূতাবাসে যোগাযোগ করলে দূতাবাসের কল্যাণ সহকারী মো. মুকসেদ আলী ৫ ডিসেম্বর ছুটে যান হাসপাতালে। আলতাফ হোসেনের খোঁজখবর নেন তিনি। তার বাম হাত একেবারে অবশ হয়ে গেছে। তবে আলতাফ হোসেন কথা বলতে না পারলেও অন্য কেউ কিছু বললে কিছুটা বুঝতে পারছে।

এ বিষয়ে দূতাবাসের শ্রম শাখার ২য় সচিব মো. ফরিদ আহমদের সঙ্গে যোগাযোগ করা হলে তিনি এ প্রতিবেদককে জানান, আলতাফ হোসেনের সঠিক টিকানা পেলে এবং সে প্রকৃত বাংলাদেশি নাগরিক কিনা যাচাই করা হচ্ছে। নাগরিকত্ব নিশ্চিত সাপেক্ষে বাংলাদেশে প্রেরণ করা যাবে।

আলতাফ হোসেনের আত্মীয়-স্বজন চিহ্নিত করে হাই-কমিশনের (+৬০১২৪৩১৩১৫০) এই নম্বরে জানানোর জন্য বিশেষভাবে অনুরোধ জানিয়েছেন এ কর্মকর্তা।

সৌজন্যে: জাগো নিউজ