cosmetics-ad

উত্তরপূর্ব এশিয়ার অভিন্ন ইতিহাস রচনার প্রস্তাব কোরিয়ান প্রেসিডেন্টের

অনলাইন প্রতিবেদক, ১৯ নভেম্বর ২০১৩:

দক্ষিণ কোরিয়ার প্রেসিডেন্ট পার্ক গুণ হে জার্মানি, ফ্রান্স ও পোল্যান্ডের অনুকরণে উত্তরপূর্ব এশিয়ার দেশগুলোর শিক্ষার্থীদের জন্য একটি অভিন্ন ইতিহাস বই প্রণয়নের প্রস্তাব দিয়েছেন। গত বৃহস্পতিবার কোরিয়ান ন্যাশনাল ডিপ্লোম্যাটিক একাডেমীর ৫০তম বর্ষপূর্তি উপলক্ষে আয়োজিত এক অনুষ্ঠানে বক্তৃতাকালে তিনি এ প্রস্তাব দেন।

park

উত্তরপূর্ব এশিয়ায় শান্তি প্রতিষ্ঠার লক্ষ্যে এ অঞ্চলের দেশসমূহকে আলোচনার মাধ্যমে ভবিষ্যৎ পরিকল্পনা নির্ধারণ পূর্বক একযোগে কাজ করার আহ্বান জানিয়ে পার্ক বলেন, “আলোচনা ছাড়া খুব সামান্য সমস্যাও সমধান করা অসম্ভব হয়ে পড়ে। লক্ষ্য এক থাকলে মতপার্থক্যের ঊর্ধ্বে উঠে তাতে পোঁছানো সম্ভব। উত্তরপূর্ব এশিয়ার একটি অভিন্ন ইতিহাস রচনার মাধ্যমে আমরা পারস্পরিক সহযোগিতার ঐতিহ্যকে আরও সমৃদ্ধ করতে পারি, যেমনটা পূর্ব ও পশ্চিম ইউরোপে জার্মানি করেছে ফ্রান্স ও পোল্যান্ডের সাথে।” এমন একটি উদ্যোগ ভবিষ্যতে প্রতিবেশী দেশগুলোর মধ্যে দ্বন্দ্ব ও অবিশ্বাসের কারণ হয়ে থাকা ‘ঐতিহাসিক সমস্যার দেয়াল’ ভেঙে দিতে সক্ষম হবে বলেও তিনি আশা প্রকাশ করেন।

উত্তরপূর্ব এশিয়া ইউরোপীয় ইউনিয়নের মতো একটি অর্থনৈতিক শক্তিতে পরিণত হলে তা কোরিয়ার জন্য অপার সম্ভাবনার দুয়ার খুলে দেবে বলে মন্তব্য করেন প্রেসিডেন্ট পার্ক। শান্তি ও পারস্পরিক সহযোগিতার উদ্যোগ গ্রহণের যথেষ্ট সুযোগ থাকা সত্ত্বেও কার্যকর প্রস্তাব নিয়ে কারও এগিয়ে না আসারও সমালোচনা করেন তিনি।

অনুষ্ঠানে চীন, জাপান, থাইল্যান্ড এবং নরওয়ের সাবেক পররাষ্ট্র মন্ত্রীসহ প্রায় তিনশ কূটনীতিক, সরকারী কর্মকর্তা ও শিক্ষার্থী উপস্থিত ছিলেন।