cosmetics-ad

বর কনের পৃথক উপহার চান অধিকাংশ কোরিয়ান

অনলাইন প্রতিবেদক, ২০ নভেম্বর ২০১৩:

কোন বিয়ের অনুষ্ঠানে দম্পতি বা যুগল হিসেবে নিমন্ত্রণে গেলে উপহারস্বরূপ উভয়ের পৃথকভাবে নগদ অর্থ দেওয়া উচিৎ বলে মনে করেন অধিকাংশ দক্ষিণ কোরিয়ান। গিওন ওয়েডিং কনসালটেন্সির সাম্প্রতিক এক জরিপে এ তথ্য পাওয়া গেছে। খুব শীঘ্রই বিয়ে করতে যাচ্ছেন এরকম ১৬২ টি প্রেমিক-প্রেমিকা যুগল এ জরিপে অংশ নেন।

hanbok_wedding-dresses


‘বিয়ের উপহার হিসেবে কি পরিমাণ অর্থ দেওয়া উচিৎ?’ এমন প্রশ্নের জবাবে অংশগ্রহণকারীদের ৫৮ শতাংশ বলেন, ‘অবশ্যই দ্বিগুণ, যেহেতু তাঁরা দুজন’। ২৩ শতাংশ বিষয়টা সংশ্লিষ্ট যুগলের হাতেই ছেড়ে দিতে চান, তবে বিয়েতে আয়োজনের পরিমাণ বিবেচনাপূর্বক উপহার প্রত্যাশা করেন তাঁরা। আর ১৭ শতাংশ একজনের উপহারেই সন্তুষ্ট থাকবেন, তাঁদের কাছে ‘বন্ধুত্বটাই আসল’।

জরিপের আরেকটি প্রশ্ন ছিল, ‘বিয়েতে আগত অতিথিদের কোন কাজটা সবচেয়ে বিরক্তিকর?’ জবাবে ৬৯ শতাংশ জানিয়েছেন, ‘বিশাল বাহিনী নিয়ে খেতে এসে একজনের উপহার দেওয়া’। ১৩ শতাংশের বিরক্তির কারন বিয়ের আনুষ্ঠানিকতা শুরুর আগেই গিফট পেতে আগ্রহীরা। বহুদূর থেকে এসে নিমন্ত্রণকারীর কাছ থেকে গাড়িভাড়া নেওয়াটা সবচেয়ে বিরক্তিকর মনে করেন ৮ শতাংশ। প্রেমিক/প্রেমিকার খোঁজে আগতদের উপর বিরক্ত ৭ শতাংশ যুগল।

জরিপ গ্রহণকারী দলের একজন কর্মী বলছিলেন, “বহু মানুষ বিয়ের অর্থ উপহারকে কেন্দ্র করে দীর্ঘ দিনের পরিচিতজনদের অন্য চোখে দেখতে শুরু করেন। এ ধরনের অনুষ্ঠানে নিমন্ত্রণদাতা ও নিমন্ত্রিতকারীর পারস্পরিক বোঝাপড়াটা তাই খুব গুরুত্বপূর্ণ।”