cosmetics-ad

অর্থ আত্মসাৎকারী ব্যাংক কর্মচারী আট বছর পর গ্রেপ্তার

অনলাইন প্রতিবেদক, সিউল, ২৭ নভেম্বর ২০১৩:

শতাধিক গ্রাহকের পাঁচশ কোটি উওন (৪৭ লাখ ইউএস ডলার) নিয়ে পালিয়ে যাওয়া হানা ব্যাংকের এক কর্মচারীকে দীর্ঘ আট বছর পর আটক করতে সক্ষম হয়েছে দক্ষিণ কোরিয়া পুলিশ। গত রবিবার জল্লাবোকদো’র জনজু থেকে কিম নামের চল্লিশ বছর বয়সী এই নারীকে গ্রেপ্তার করা হয়।

images

পুলিশ বলছে, নব্বই দশকের শেষভাগে শেয়ারবাজার ও বিভিন্ন ইনভেস্টমেন্ট কর্পোরেশনে বিনিয়োগ করে কিম তাঁর পিতামাতার কিছু অর্থসহ ১০ কোটি উওন হারান। ক্ষতি পোষাতে তিনি ব্যাংকে ফিক্সড ডিপোজিট করতে আসা গ্রাহকদের ভুয়া রিসিট দিয়ে তাঁদের জমাকৃত অর্থ আত্মসাৎ করতে শুরু করেন। এভাবে ২০০০ সালের আগস্ট মাস থেকে ২০০৪ সাল পর্যন্ত তিনি পাঁচশ কোটি উওনের কিছু বেশী অর্থ সরিয়ে নেন। তবে এর প্রায় পুরোটাই তিনি শেয়ার বাজারে বিনিয়োগ করে পুনরায় ক্ষতির মুখ দেখেন।

২০০৫ সালের জানুয়ারীতে ব্যাংক কর্তৃপক্ষ পুলিশের চাপে অভ্যন্তরীণ অনুসন্ধান শুরু করলে ধরা পড়ে যাওয়ার ভয়ে কিম আত্মগোপনে যান ও গত রবিবার পর্যন্ত পলাতক থাকতে সক্ষম হন।

প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে পুলিশের কাছে অর্থ আত্মসাতের বিষয়টি শিকার করে কিম বলেছেন, তাঁর ১৫ বছর বয়সী ছেলেটা এ বছরের শেষে স্কুল ফাইনাল পরীক্ষা দেয়ার পরপরই তিনি আত্মসমর্পণের প্রস্তুতি নিচ্ছিলেন। ভদ্রমহিলা পুলিশকে আরও জানিয়েছেন, এই আট বছর তিনি জনজুতেই একটি এক রুমের ফ্ল্যাটে বসবাস করতেন। গভীর রাতে পরিবার, স্বামী ও ছেলের সাথে দেখা করতে যেতেন। আত্মসাৎকৃত অর্থের অবশিষ্ট অংশ ও পরিবার থেকে পাওয়া কিছু টাকাপয়সা দিয়ে দিনযাপন করেছেন।

জনজু পুলিশ বিচারকাজ শুরুর আগ পর্যন্ত কিমকে আটক রাখার অনুমতি চেয়ে গতকাল আদালতে আবেদন দাখিল করেছে।