cosmetics-ad

সেজংয়ে স্থানান্তরিত হচ্ছে আরও ছয় মন্ত্রণালয়

সিউল, ১৩ ডিসেম্বর ২০১৩, সিউল:

দক্ষিণ কোরিয়ার সরকারি মন্ত্রণালয়সমূহকে সেজং সিটিতে স্থানান্তরের দ্বিতীয় দফা কার্যক্রম শুক্রবার থেকে শুরু হয়েছে। প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয় থেকে ঘোষিত পরিকল্পনা অনুসারে, ১৩-১৯ ডিসেম্বরের মধ্যে প্রায় চার হাজার নয়শ সরকারি কর্মচারীসহ ছয়টি মন্ত্রণালয় ও এসব মন্ত্রণালয়ের ১০টি অধীনস্থ প্রতিষ্ঠান সেজংয়ে স্থানান্তরিত হবে।

Sejong_City

শুক্রবার থেকে যেসব মন্ত্রণালয় স্থানান্তরের কাজ শুরু হবে সেগুলো হচ্ছে স্বাস্থ্য ও কল্যাণ মন্ত্রণালয়, সংস্কৃতি মন্ত্রণালয়, ক্রীড়া ও পর্যটন মন্ত্রণালয় এবং দেশপ্রেমিক ও অবসরপ্রাপ্ত কর্মচারী কল্যাণ মন্ত্রণালয়। ২৬ ডিসেম্বরের মধ্যে এ মন্ত্রণালয়সমূহের স্থানান্তরের কাজ সম্পন্ন করা হবে। সিউলের ১৫০ কিলোমিটার দক্ষিণে প্রশাসনের এই নতুন কেন্দ্রবিন্দুতে খুব শীঘ্রই যোগ দেবে বানিজ্য, শিল্প ও শক্তি মন্ত্রণালয়; শ্রম ও কর্মসংস্থান মন্ত্রণালয় এবং শিক্ষা মন্ত্রণালয়।

স্থানান্তর কার্যক্রম দেখভালকারী সরকারি সংস্থাগুলো থেকে প্রাপ্ত তথ্য মোতাবেক দ্বিতীয় দফায় এ স্থানান্তর প্রক্রিয়ার প্রয়োজনীয় অবকাঠামোই তৈরি ও আনুষঙ্গিক কার্যাদি গত মাসেই সম্পন্ন করা হয়েছে। পার্কিং স্পেস বৃদ্ধির পাশাপাশি সেজংয়ে বাস রুটের সংখ্যা ৩৭ থেকে ৪৭ এ উন্নীত করা হয়েছে। একাধিক দিবাযত্ন কেন্দ্র চালু করা হয়েছে; প্রতিষ্ঠা করা হয়েছে ১১টি নতুন প্রাইমারী, মাধ্যমিক ও উচ্চ মাধ্যমিক স্কুল যেগুলো আগামী মার্চের মধ্যে কার্যক্রম শুরু করবে।

দ্বিতীয় দফায় ছয়টি মন্ত্রণালয় স্থানান্তরের মাধ্যমে কোরিয়া সরকারের ১৭টি মন্ত্রণালয়ের ১০টিই সেজংয়ের নতুন প্রশাসনিক কেন্দ্রে চলে যাচ্ছে। এর আগে গেলো বছর সেজংয়ে স্থানান্তরিত হয় অর্থ ও কৌশল মন্ত্রণালয়; ভূমি, অবকাঠামো ও পরিবহণ মন্ত্রণালয়; পরিবেশ মন্ত্রণালয় এবং কৃষি, খাদ্য ও গ্রাম সম্পর্কিত মন্ত্রণালয়। এছাড়া প্রথম দফা স্থানান্তর প্রক্রিয়ায় সেজংয়ে স্থায়ী হয় প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয় ও অবাধ বানিজ্য কমিশন।