sentbe-top

অস্ট্রেলিয়ায় কর প্রতারকদের খপ্পর থেকে সাবধান!

australia
প্রতারণা সম্পর্কে অস্ট্রেলিয়ার কর বিভাগের প্রচারণা

অস্ট্রেলিয়ার কর প্রদানের সময় সন্নিকটে। তাই অস্ট্রেলিয়ায় বসবাসরত বাংলাদেশি যারা কর দেন তাদের সাবধান হওয়ার সময়ও এসে গেছে। কারণ কয়েকটি প্রতারক চক্র কর বিভাগের ভুয়া পরিচয়ে সক্রিয় হয়ে উঠেছে। এ চক্র কর প্রদানকারীর অসচেতনতার সুযোগ নিয়ে নগদ অর্থ হাতিয়ে নেয়। আপনি একটু অসাবধান হলেই খুব সহজেই এই কর প্রতারকদের খপ্পরে পড়ে যেতে পারেন।

সম্প্রতি অস্ট্রেলিয়ার কর বিভাগ (অস্ট্রেলিয়ান ট্যাক্স অফিস বা এটিও) এই চক্রের ব্যাপারে সাবধান করে দিয়েছে। অস্ট্রেলীয় করদাতারা সাধারণত ১ জুলাই থেকে ৩১ অক্টোবরের মধ্যে সরকারকে কর প্রদান করেন। কর পরিশোধের পর কোনো করদাতা নির্দিষ্ট পরিমাণের বেশি কর পরিশোধ করলে ট্যাক্স রিটার্নের মাধ্যমে বাড়তি অর্থ ফেরত দেয় অস্ট্রেলিয়ার কর বিভাগ। অর্থবছর শেষে অস্ট্রেলিয়ার কর বিভাগ বরাবর আবেদন করলেই তা ফিরিয়ে দেয় কর্তৃপক্ষ। তবে এর উল্টো ঘটনাও রয়েছে। কেউ ট্যাক্স রিটার্নের নামে বেশি অর্থ নিয়ে নিলে কর কর্তৃপক্ষ হিসাব দেখিয়ে পরবর্তীতে ফিরিয়ে নেয়।

আর এই পদ্ধতির সুযোগটাই নিয়ে থাকে একদল প্রতারক চক্র। কর বিভাগের কর্মকর্তার নাম করে এই প্রতারক দলের কেউ একজন ফোন কলের মাধ্যমে কাউকে অবগত করেন যে, তিনি ট্যাক্স রিটার্নের মাধ্যমে বেশি অর্থ নিয়েছেন। সেই অর্থ শিগগিরই ফেরত না দিলে আদালতে মামলা দায়ের করা হবে। কীভাবে অর্থ ফেরত দিতে হবে সে বিষয়েও জানায় প্রতারক দল। এভাবেই অস্ট্রেলিয়ায় ভুয়া কলের মাধ্যমে কয়েক বছর ধরে লাখ লাখ ডলার হাতিয়ে নিচ্ছে প্রতারক দল। গত অর্থ বছরই কর প্রতারকেরা ভুয়া ফোন কলের মাধ্যমে প্রায় ২০ লাখ অস্ট্রেলীয় ডলার হাতিয়ে নেয়। ভুক্তভোগীদের মধ্যে অভিবাসীদের সংখ্যায় বেশি।

australia-spam
প্রতারকদের পাঠানো ভুয়া বার্তা

অর্থ ফিরিয়ে দেওয়ার নাম করে ভুয়া বার্তাও পাঠানো হয়। এমন বার্তায় কর প্রদানকারীকে জানানো হয়, আপনি এ পরিমাণ করের অর্থ ফেরত পেয়েছেন, অর্থ পেতে আপনার ব্যাংক তথ্য দিন। গত মাসেই এ ধরনের প্রচুর ভুয়া বার্তা আসার অভিযোগ জানানো হয়েছে কর বিভাগকে।

অস্ট্রেলিয়ার কর বিভাগ তাদের ওয়েবসাইটে জানিয়েছে, তারা কখনোই এ ধরনের বার্তা প্রেরণ করে না। অর্থ ফেরত পাওয়ার কথা জানিয়ে অস্ট্রেলিয়ান ট্যাক্স অফিস বা এটিও কখনোই বার্তা প্রেরণ করে না। এমনকি তাদের কোনো ধরনের বার্তাতেই ব্যক্তিগত তথ্য চাওয়া হয় না। বার্তার মাধ্যমে কোনো লিংকও পাঠানো হয় না বলে নিশ্চিত করেছে দেশটির কর বিভাগ। কর প্রদানকারীকে প্রতারণার থেকে বাঁচতে বারংবার সচেতন করে চলেছে কর বিভাগ। বাংলাদেশিরা এই কর প্রতারকদের খপ্পর থেকে সাবধান থাকুন।

সূত্র- প্রথম আলো

sentbe-top