sentbe-top

চলতি বছর ভূমধ্যসাগরে ১৬০০ শরণার্থীর মৃত্যু

sea
সমুদ্রপথে ইউরোপে পাড়ি জমানোর পথে প্রায় জাহাজডুবির ঘটনা ঘটে।

জাতিসংঘ শরণার্থীবিষয়ক সংস্থার (ইউএনসিএইচআর) এক প্রতিবেদন অনুযায়ী ভূমধ্যসাগরীয় অঞ্চল দিয়ে অবৈধভাবে ইউরোপে পাড়ি দেয়ার পথে চলতি বছর ১৬শ’য়ের বেশি মানুষ নিহত কিংবা নিখোঁজ হয়েছেন। সংস্থাটির ঝুঁকিপূর্ণ ভ্রমণ প্রতিবেদনে বলা হয় এ বছর ঝুঁকিপূর্ণ পথে পাড়ি দেয়ার সময় প্রতি ১৮ জনের মধ্যে একজন নিহত হয়েছেন।

সোমবার প্রকাশিত ওই প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, যখন সাগরপথে পারাপার হওয়ার পর সংখ্যা কমে যায় তখন নিহতের সংখ্যা বেড়ে যায়। যারা ওপারে যেতে চায় তাদের মধ্যে এই সংখ্যাটা বেশি। ওই প্রতিবেদন অনুযায়ী, এ অঞ্চলে নজরদারি বেড়ে যাওয়ার কারণে মানব পাচারকারীরা মারাত্মক ঝুঁকি নিয়ে পারাপারের কাজটি করে।

গত বছর অর্থাৎ ২০১৭ সালে অবৈধভাবে পারাপারের সময় ২ হাজার ২৭৬ শরণার্থী নিহত হয়েছেন। প্রতিবেদন অনুযায়ী হিসাব করলে প্রতি ৪২ জনের মধ্যে একজন নিহত হয়েছেন।
sentbe-ad
আর চলতি বছরে নিহতের সংখ্যা ১ হাজার ৯৫ জন অর্থাৎ প্রতি ১৮ জনের মধ্যে একজন এ পথে পারাপারের সময় নিহত হয়েছেন। শুধু এ বছরের জুনের পরিসংখ্যানে দেখা যায় যে প্রতি ৭ জনের মধ্যে একজন নিহত হয়েছেন। এছাড়া নিখোঁজ হয়েছে পাঁচশ শরণার্থী।

জাতিসংঘ শরণার্থীবিষয়ক সংস্থার ইউরোপীয় ব্যুরো পরিচালক প্যাসকেল মরেউ বলেন, এই প্রতিবেদন আবার এটা নিশ্চিত করলো যে ভূমধ্যসাগরীয় অঞ্চল হলো অবৈধ অভিগমনের জন্য বিশ্বের সবচেয়ে মারাত্মক সমুদ্রপথ।

সৌজন্যে- জাগো নিউজ

sentbe-top