cosmetics-ad

মাহাথির মোহাম্মদকে শান্তিতে নোবেল দিতে অনলাইন পিটিশন

mahathir-nobel

‘আমি এত মহৎ নই।’ এটা হচ্ছে মালয়েশিয়ার প্রধানমন্ত্রী মাহাথির মোহাম্মদের একটি প্রতিক্রিয়া। চলতি বছরে শান্তিতে নোবেল পুরস্কারের আবেদনে তার নাম পাঠানোর ব্যাপারে জানতে চাওয়ায় তিনি এই প্রতিক্রিয়া জানিয়েছেন।

সোমবার তার রাজনৈতিক দল পার্টি ‘প্রিবুমি বারসাতু মালয়েশিয়া’র প্রধান কার্যালয়ে তিন ঘণ্টার এক বৈঠকে এক প্রশ্নের জবাবে তিনি ওই মন্তব্য করেছেন। বৈঠকের আলোচ্যসূচিতে ছিল চলতি বছরে শান্তিতে নোবেল পুরস্কারের মনোনয়নের আবেদনে মাহাথির মোহাম্মদের নাম পাঠানোর একটি অনলাইন পিটিশন।

মাহাথিরকে শান্তিতে নোবেল পুরস্কারে মনোনীত করার জন্য চেঞ্জডটওআরজি’তে (change.org) একটি অনলাইন পিটিশনে স্বাক্ষর কর্মসূচি শুরু করেছেন অ্যালেক্সান্দ্রিয়া অবিশেগাম নামের এক ব্যক্তি ওই স্বাক্ষর কর্মসূচি শুরু করেছেন। সোমবার স্থানীয় সময় রাত ৯টা পর্যন্ত এতে স্বাক্ষর করেছেন এক লাখ ৩ হাজারের বেশি মানুষ।

আবেদনে অবিশেগাম বলেছেন, ‘‘রাজনীতিতে ফিরে আসার জন্য ‘সংকল্পের স্বীকৃতি’ হিসেবে মাহাথিরকে মনোনীত করা উচিত।’’ তিনি আরো বলেছেন, মালয়েশিয়ায় স্বচ্ছতা, গণতন্ত্র ও আইনের শাসনের গুরুত্বের ওপর মনোনিবেশ করেছেন ডা. মাহাথির।

‘তবে এখানে আরো একটি বিষয় হচ্ছে, ডা. মাহাথির তার অতীতের শাসনের সময় সংঘটিত ভুল প্রকাশ্যে স্বীকার করেছেন এবং ক্ষমা চেয়েছেন। অতীতের ভুলের জন্য ক্ষমা চাওয়ায় তিনি নিজেকে ‘বিশাল মনের মানুষ’ এবং ‘অনুকরণীয় নেতা’ হিসেবে তুলে ধরেছেন।

পিটিশনের বর্ণনায় মাহাথির মোহাম্মদকে ‘মালয়েশিয়ার নেলসন ম্যান্ডেলা’ হিসেবে লেখা হয়েছে। এছাড়া শান্তিপূর্ণভাবে ক্ষমতা হস্তান্তর হওয়ায় প্রধানমন্ত্রীকে ধন্যবাদ জানানো হয় ওই পিটিশনে।

সৌজন্যে- জাগো নিউজ