Search
Close this search box.
Search
Close this search box.

ভারতের নতুন গতিতারকার আচরণে ক্ষুদ্ধ আইসিসি!

sainiওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে স্বপ্নিল এক অভিষেক হয়েছে ভারতের নতুন গতিতারকা নবদীপ সাইনির। নিয়মিত ১৪৫-১৫০ কিমি প্রতি ঘণ্টায় বল করতে পারা এ পেসার, আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে নিজের প্রথম ম্যাচেই জিতেছিলেন ম্যাচসেরার পুরষ্কার।

chardike-ad

শনিবার নিজের চার ওভারের স্পেলে মাত্র ১৭ রান খরচায় নিয়েছেন ৩টি উইকেট, ছিলো একটি মেইডেন ওভারও। আর মেইডেনটিও কি-না ইনিংসের শেষ ওভারে!

টি-টোয়েন্টি ক্রিকেটের শেষ ওভারে মেইডেন নিঃসন্দেহে অবিশ্বাস্য এক কীর্তি। আন্তর্জাতিক টি-টোয়েন্টিতে সাইনির আগে এ অসাধারণ নজির দেখিয়েছেন মাত্র তিনজন বোলার। নিজের অভিষেক ম্যাচেই চতুর্থ বোলার হিসেবে এ তালিকায় ঢুকে গেছেন সাইনি।

কিন্তু সেই একই ম্যাচে দৃষ্টিকটু আচরণ করে আইসিসির কাছে তিরষ্কৃত হয়েছেন ২৬ বছর বয়সী এ পেসার। নিজের অভিষেক ম্যাচে সেরা খেলোয়াড়ের পুরষ্কার যেমন জিতেছেন, তেমনি মুদ্রার উল্টো পিঠটাও দেখা হয়েছে সাইনির।

ওয়েস্ট ইন্ডিজের ইনিংসের চতুর্থ ওভারে বোলিং করতে এসেছিলেন সাইনি। প্রথম দুই বলে চার ও ছয় মেরে তাকে স্বাগত জানান ক্যারিবীয় ব্যাটসম্যান নিকলাস পুরান। তবে চতুর্থ বলেই পুরানকে সাজঘরে পাঠিয়ে দেন সাইনি। তখনই পুরানকে ড্রেসিংরুমে ফিরে যাওয়ার ইঙ্গিত দিয়ে বুনো উল্লাসে মেতে ওঠেন সাইনি।

যা নজর এড়ায়নি ম্যাচের দুই আম্পায়ার নাইজেল দিগুদ এবং গ্রেগরি ব্রাথওয়েটের। তাদের দেয়া রিপোর্টের ওপর ভিত্তি করে সাইনিকে ডেকে তিরষ্কৃত করেছেন ম্যাচ রেফারি জেফ ক্রো। সঙ্গে দিয়েছেন একটি ডিমেরিট পয়েন্ট। সাইনি নিজের অপরাধ স্বীকার করে নেয়ায় আনুষ্ঠানিক শুনানির প্রয়োজন পড়েনি।