sentbe-top

কাতারে বাংলাদেশি ছাত্র তামিমের কৃতিত্ব

tamimমধ্যপ্রাচ্যের প্রভাশালী দেশ কাতারের একমাত্র জাতীয় ও সরকারি বিশ্ববিদ্যালয় কাতার বিশ্ববিদ্যালয়ের ৩৮তম সমাবর্তনে স্বর্ণপদক পেয়েছেন বাংলাদেশি ছাত্র তামীম রায়হান। ২০ মে বুধবার দুপুরে অনুষ্ঠিত কাতার জাতীয় কনভেনশন সেন্টারে এক জমকালো অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন ডেপুটি আমির শেখ আব্দুল্লাহ বিন হামাদ আলথানি।

এসময় দাওয়া ও সাংবাদিকতা বিষয়ে বাংলাদেশি তামীম রায়হানসহ পুরো বিশ্ববিদ্যালয় থেকে সর্বোচ্চ নম্বর পাওয়া ৩৩ জন মেধাবী ছাত্রের হাতে তিনি স্বর্ণপদক তুলে দেন। কাতারের প্রধানমন্ত্রী শেখ আব্দুল্লাহ বিন নাছের বিন খলিফা আলথানি এবং মন্ত্রী পরিষদের অন্যান্য সদস্যবর্গ এসময় উপস্থিত ছিলেন।

তামিম তার নিজের মেজর সাবজেক্টে (দাওয়া অ্যান্ড মাস মিডিয়িা) প্রথম স্থান অর্জন করে বাংলাদেশের মর্যাদা অনেক উপরে নিয়ে গেছেন বলে জানান কাতার প্রবাসী বাংলাদেশিরা।

কাতার বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রেসিডেন্ট প্রফেসর শেখ আব্দুল্লাহ আল মিসনাদ এবং অন্যান্য বিভাগের ডিন ও শিক্ষকরা অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন। উদ্বোধনী বক্তৃতায় বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রেসিডেন্ট শিক্ষার্থীদের সবাইকে অভিনন্দন এবং তাদের কর্মময় উজ্জ্বল ভবিষ্যত প্রার্থনা করেন।

তিনি বলেন, “আমার হাতে গত ১২ বছরে যে প্রায় বিশ হাজার ছাত্র-ছাত্রী তাদের সনদপত্র পেয়েছেন, তাদের নিয়ে আমি ভীষণ গর্ববোধ করি।”

কাতারের সবগুলো পত্রিকা ও টিভি চ্যানেলে অনুষ্ঠানের ব্যাপক প্রচার করা হয়। দেশটির অন্যতম প্রভাবশালী পত্রিকা পেনিনসুলার প্রথম পাতায় স্থান পায় বাংলাদেশি এ ছাত্রের ছবি। তামিমের পিতা ডা. গোলাম হোসেন, সৌদিআরবের মদীনায় কর্মরত চিকিৎসক। মা আমেনা আফরোজ, চারভাই এক বোনের মধ্যে দ্বিতীয় তামিম।

প্রসঙ্গত, এবারের সমাবর্তনে বিশ্ববিদ্যালয়টির ছয়টি কলেজ থেকে ৩০০ জন অনার্স, ৭৯ জন মাস্টার্স এবং একজন ডক্টরেট ডিগ্রি অর্জন করেছেন। এ ৩০০ জনের মধ্যে মোট ৭জন বাংলাদেশি ছাত্র রয়েছেন। আলাদা অনুষ্ঠানে আয়োজিত সমাবর্তনে বিশ্ববিদ্যালয়ের ডিগ্রি লাভ করেছেন আরও এক হাজার ৪১ জন ছাত্রী।

সূত্রঃ নিউজবাংলাদেশ.কম

sentbe-top