sentbe-top

বাংলাদেশিকে মারার শাস্তি পেল মালয়েশিয়ার সেই নাগরিক

malaysiaএক বাংলাদেশিকে বিনা অপরাধে চড় মারার শাস্তি পেয়েছেন মালয়েশিয়ার এক নাগরিক। আদালতে দোষ স্বীকার করার পর ওই ব্যক্তিকে পাঁচ হাজার মালয়েশিয়ান রিঙ্গিত (প্রায় এক লাখ টাকা) জরিমানা করা হয়েছে। মারধরের শিকার ওই বাংলাদেশির নাম সাহেব আলী। বাংলাদেশিকে মারধরের ওই ঘটনার একটি অনলাইনে ছড়িয়ে পড়ে।

গত বুধবার মালয়েশিয়ার রাকিয়াত পোস্টের এক খবরে এ কথা বলা হয়েছে।
ওই পত্রিকার খবরে বলা হয়, সাহেব আলী মালয়েশিয়ার সুবাং এলাকার ‘মাস্টার ক্লিন কার কেয়ার’ নামের গাড়ি ধোয়া-মোছার একটি প্রতিষ্ঠানে কাজ করেন।


মালয়েশিয়ায় বাংলাদেশি নির্যাতনের ভিডিও নিয়ে তোলপাড়


মালয়েশীয় নাগরিক মো. রিছামুদ্দিন ওয়াহাব (৩০) নিজের বিলাসবহুল একটি গাড়ি ১৭ অক্টোবর পরিষ্কার করতে দিয়েছিলেন। ওই মালয়েশীয় নাগরিকের অভিযোগ, বাংলাদেশি শ্রমিক গাড়ির ভেতরে পরিষ্কার করতে গিয়ে উল্টো নোংরা করে ফেলেছেন। এই অভিযোগে তিনি সাহেব আলীকে মারধর করেন। ওই প্রতিষ্ঠানে সিসি ক্যামেরায় মারধরের ঘটনা ধরা পড়ে।

এ ঘটনায় গাড়ির মালিক ওয়াহাবের বিরুদ্ধে স্বেচ্ছায় আঘাত করার অভিযোগে মামলা করা হয়। পরে একটি ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে বিচার চলাকালে রিছামুদ্দিন ওয়াহাব দোষ স্বীকার করেন।  বুধবার এই মামলার রায় হয়। আদালতের বিচারক ওয়াহাবকে পাঁচ হাজার রিঙ্গিত জরিমানা করেন।

এই অর্থ মারধরের শিকার সাহেব আলীকে ও তিনি যে প্রতিষ্ঠানে কাজ করেন, তার মালিককে দেওয়ার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। পাশাপাশি আদালত এ বিষয়ে গণমাধ্যমে বিবৃতি দিতে বা নতুন করে আইনি পদক্ষেপ না নিতে দুই পক্ষকেই নির্দেশ দিয়েছেন।

এদিকে মারধরের ভিডিওচিত্রটি অনলাইনে ছড়িয়ে পড়ার পর এ নিয়ে ব্যাপক আলোচনা-সমালোচনা শুরু হয়েছে মালয়েশিয়ায়।

sentbe-top