sentbe-top

চাকরিদাতার সঙ্গে প্রতারণা করাই যে নারীর পেশা

ctgচাকরির জন্য বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানে আবেদন করেন রওশন আক্তার। এরপর ওই প্রতিষ্ঠানের শীর্ষ কর্মকর্তা কিংবা মালিকের সঙ্গে যোগাযোগ করে সম্পর্ক তৈরি করেন। এরপর পাতেন প্রতারণার ফাঁদ।

চট্টগ্রাম নগরীর হালিশহরের একটি ইঞ্জিনিয়ারিং ফার্মের ব্যবস্থাপনা পরিচালককে (এমডি) প্রতারণার ফাঁদে ফেলে টাকা হাতিয়ে নেওয়ার পর ওই নারীকে গ্রেফতার করেছে নগর গোয়েন্দা পুলিশ। মঙ্গলবার (১৩ ফেব্রুয়ারি) ভোরে নগরীর বেপারিপাড়া এলাকার একটি বাসা থেকে তাকে গ্রেফতার করা হয়।

নগর গোয়েন্দা পুলিশের উপ-কমিশনার (বন্দর) মোহাম্মদ শহীদুল্লাহ জানান, হালিশহরের ইঞ্জিনিয়ারিং ফার্মে চাকরির জন্য আবেদনের পর এমডির সঙ্গে ফেসবুক ও মোবাইলের মাধ্যমে যোগাযোগ করেন। বিশ্বাস স্থাপনের পর পরিবারের অভিভাবকের সঙ্গে যোগাযোগ করে দেওয়ার কথা বলে গত ২৩ জানুয়ারি বেপারীপাড়ার বাসায় নিয়ে যান।

সেই বাসায় প্রতারক চক্রের কয়েকজন পুরুষ সদস্য মিলে এমডিকে জিম্মি করে টাকাপয়সা ও মোবাইল কেড়ে নেয়। এরপর বিভিন্ন ভঙ্গিতে রওশনের সঙ্গে তার ‍অশ্লীল ছবি তুলেন। সেই ছবি প্রকাশের ‍হুমকি দিয়ে বিকাশের মাধ্যমে এক লাখ টাকা আদায় করেন। পরে আরও এক লাখ টাকা দেওয়ার শর্তে তাকে ছেড়ে দেন।

নগর গোয়েন্দা পুলিশের অতিরিক্ত উপ-কমিশনার (বন্দর) মোহাম্মদ আবু বকর সিদ্দিক বলেন, এমডি’র অভিযোগ পাবার পর বেপারিপাড়ার বাসায় অভিযান চালিয়ে রওশনকে আটক করা হয়েছে। প্রতারণার শিকার ব্যক্তি বাদি হয়ে নগরীর ডবলমুরিং থানায় একটি মামলা দায়ের করেছেন বলে জানিয়েছেন তিনি।

সূত্র- বাংলানিউজ

sentbe-top