sentbe-top

বাজারে বিক্রি হওয়া ৯০% মিনারেল পানিতে রয়েছে প্লাস্টিককণা!

water-bottleরাস্তায় বেরিয়ে মিনারেল পানির বোতল কেনার অভ্যাস অনেকেরই৷ মনে করা হয় ওই পানি সবচেয়ে নিরাপদ। কিন্তু বিজ্ঞানীরা বলছেন, সেখানেও লুকিয়ে আছে মাইক্রোপ্লাস্টিক। নতুন গবেষণায় দেখা গিয়েছে, বাজারে বিক্রি করা ৯০ শতাংশ পানির বোতলে প্লাস্টিকের কণা রয়েছে।

বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা (ডব্লিউএইচও) এ সম্পর্কিত একটি গবেষণার ফলাফল ঘোষণা করেছে। এক নতুন গবেষণায় দেখানো হয়েছে, বিশ্বের জনপ্রিয় মিনারেল পানির বোতলে ৯০ শতাংশ ছোট ছোট টুকরো প্লাস্টিক (মাইক্রোপ্লাস্টিক) পাওয়া গেছে। এর আগেও একটি গবেষণায় ট্যাপের পানিতে উচ্চমাত্রায় মাইক্রোপ্লাস্টিক পাওয়া গিয়েছিল। সূত্র দ্য গার্ডিয়ান, ডয়েচে ভেলে।

নতুন এ গবেষণায় দেখানো হয়েছে ৯টি দেশের ১৯টি স্থানের ২৫৯টি বোতলে গড়ে ৩২৫ প্লাস্টিকের কণা পাওয়া গিয়েছে। বিভিন্ন ব্র্যান্ডের প্রতি লিটার পানির বোতলে এই প্লাস্টিক কণাগুলো পাওয়া যায়।

এর মধ্যে শুধু ১৭টি বোতলই প্লাস্টিক কণা মুক্ত ছিল। যুক্তরাষ্ট্রের ফ্রেডোনিয়াতে স্টেট ইউনিভার্সিটি অব নিউইয়র্কের গবেষকদের এই মিনারেল পানির বোতলগুলো পরীক্ষা করতে অনুমোদন দেওয়া হয়েছিল। এ অনুমোদনর দেয় জার্নালিজম প্রজেক্ট ওআরবি মিডিয়া।

২০১২ সালে গোটা বিশ্বে ২৮৮ বিলিয়ন লিটার বোতলবন্দি পানি বিক্রি হয়েছিল। ২০১৭ সালে সেই সংখ্যাটা বেড়ে দাঁড়িয়েছে ৩৯১ বিলিয়ন লিটার। এখনো পর্যন্ত পানির বোতলের মাইক্রো প্লাস্টিকে ক্ষতিকর কিছু পাওয়া যায়নি। কিন্তু যদি অদূর ভবিষ্যতে তেমন কিছু মেলে,তাহলে তা কত মানুষকে আক্রান্ত করবে, তা ভেবেই চিন্তিত বিজ্ঞানীরা। প্লাস্টিকের বোতলে জল বিক্রি নিষিদ্ধ করা উচিত কি না, তা নিয়েও ইতিমধ্যেই আলোচনা শুরু হয়েছে কোনো কোনো মহলে।

সৌজন্যে- অর্থসূচক

sentbe-top