cosmetics-ad

যশোরে ঝাড়ুদারের মোবাইল চুরি করে ধরা পড়লো প্রধান শিক্ষক

shohidul

যশোরের শার্শা পাইলট হাইস্কুলের প্রধান শিক্ষক শহিদুল ইসলামের বিরুদ্ধে উপজেলা অফিসের ঝাড়ুদারের মোবাইল চুরি করার অভিযোগ উঠেছে। মঙ্গলবার বেলা ১২টার সময় উপজেলা অফিসে এ ঘটনা ঘটে।

স্থানীয়রা জানান, শার্শার সরকারি পাইলট স্কুলের প্রধান শিক্ষক শহিদুল ইসলাম উপজেলা অফিসের ঝাডুদারের মোবাইল সোফার উপর থেকে নিয়ে পকেটে রাখে। এরপর ওই ঝাড়ুদার তার মোবাইল না পেয়ে নির্বাহী অফিসার পুলক কুমার মন্ডলের নিকট অভিযোগ করেন।

এরপর উপজেলা নির্বাহী অফিসারেরর নির্দেশে সিসি ক্যামেরায় দেখা যায় পাইলট স্কুলের প্রধান শিক্ষক শহিদুল ইসলাম মোবাইলটি নিয়ে পকেটে রাখে। এ ব্যাপারে শহিদুল উপজেলা প্রশাসনের নিকট প্রথমে অস্বীকার করলেও পরে সিসি ক্যামেরার ফুটেজের কথা বললে সাথে সাথে মোবাইল দিয়ে ক্ষমা প্রার্থনা করে।

মোবাইল চুরির বিষয়টি শহিদুল ইসলামের নিকট জানতে চাইলে তিনি বলেন এটা একটা দুর্ঘটনা। আমি ভুল করে নিয়েছিলাম পরে ফিরিয়ে দিয়েছি। এ ব্যাপারে শার্শা উপজেলা নির্বাহী অফিসারের কাছে জানতে চাইলে তিনি বলেন, এ বিষয়টি বাদ দিন। ভালো নিউজ করেন। কারো মান সম্মান নিয়ে লেখা ঠিক না।

শার্শা উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান মেহেদী হাসানের কাছে বিষয়টি জানতে চাইলে তিনি বলেন, কেউ অপরাধ করলে তার শাস্তি সে পাবে। আমি কোন অপরাধীর বিষয়ে কাউকে কোথাও কোন বিষয়ে সুপারিশ করব না। উল্লেখ্য সম্প্রতি ওই শিক্ষকের বিরুদ্ধে জুয়া খেলা, স্কুলের বই বিক্রি, ছাত্রকে পিটিয়ে স্কুল থেকে বের করে দেওয়া সহ নানান ধরনের অভিযোগ উঠে।